যুক্তরাষ্ট্রে অধ্যয়নরত বিদেশি শিক্ষার্থীদের দেশটি ছাড়তে হতে পারে বা নির্বাসনে যেতে হবে। এমনই বার্তা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার।

সোমবার দেশটির ইমিগ্রেশন এবং শুল্ক প্রয়োগকারী সংস্থা ঘোষণা দিয়েছে, বিদেশি শিক্ষার্থীদের যুক্তরাষ্ট্র ত্যাগ করতে হবে বা নির্বাসনে যেতে হবে যদি তাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো অনলাইন ভিত্তিক পাঠদান চালু করে।

এক বিবৃতিতে ওই সংস্থা জানায়, এফ-১ এবং এম-১ ভিসাধারী শিক্ষার্থীরা যারা এমন পরিস্থিতির সম্মুখীন তাদের ‘অবশ্যই এদেশ ত্যাগ করতে হবে অথবা অন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

এই নিয়ম অমান্য করলে পরিণতি ভোগ করতে হবে বলে সংস্থার তরফে বলা হয়েছে।

দেশটির নতুন এই আইনে হাজারো বিদেশি শিক্ষার্থী বিপাকে পড়তে পারেন বলে সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে ইতোমধ্যে দেশটির বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অনলাইন ভিত্তিক পাঠ দানের সিধান্ত নিয়েছে।

দেশটির হার্ভার্ড এরই মধ্যে তাদের সকল কোর্স অনলাইনে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে, এমনকি যারা ওই ক্যাম্পাসে বাস করেন তাদের জন্যও।

হার্ভার্ডের কেনেডি গভর্নমেন্ট অফ গভর্নমেন্টের স্নাতকের শিক্ষার্থী ভ্যালেরিয়া মেন্ডিওলা (26) বলেন, এটি খুবই হতাশাজনক।

তিনি বলেন, যদি আমাকে মেক্সিকো ফিরে যেতে হয় তাহলে আমি ফিরতে পারবো কিন্তু অনেক বিদেশি শিক্ষার্থী তা পারবে না। সিএনএন,এনবিসি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য