নিখোঁজের পাঁচদিন পর লালমনিরহাটের পাটগ্রাম সীমান্তের ভারতীয় নদী থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তরিকুল ইসলাম (২৮) নামে এক বাংলাদেশি যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে বিজিবি ও পুলিশ।

রোববার (৫ জুলাই) দুপুরে উপজেলার শ্রীরামপুর ইউনিয়নের মাইয়ামারার এলাকার বাংলাদেশের অভ্যন্তরে পিলার নং ৮৪২ থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে।

এর আগে সকালে বিজিবি সদস্যরা নদীতে মরদেহটি দেখতে পান। মৃত তরিকুল ইসলাম উপজেলার বুড়িমারী ইউনিয়নের আমবাড়ি গ্রামের আজিজুল ইসলামের ছেলে।

পরিবার জানায়, গত ১ জুলাই সন্ধ্যায় বাজারের কথা বলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান তরিকুল ইসলাম। ওইদিন রাতে তিনি আর বাড়িতে ফেরেননি। পরেরদিন সকালে মুঠোফোনে অনেকবার চেষ্টা করা হলেও তার মোবাইলটি বন্ধ পাওয়া যায়।

দুপুরে তার বন্ধু-বান্ধবের কাছে গিয়েও তার কোনো খোঁজ না পেয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্যকে বিষয়টি জানান পরিবারের লোকজন।

এদিকে পাঁচদিন পর রোববার সকালে বিজিবির কাছে খবর আসে সীমান্তে এক যুবকের মরদেহ পাওয়া গেছে। পরে পুলিশ ও বিজিবি নিখোঁজ তরিকুল ইসলামের স্বজনদের নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহটি শনাক্ত করে। শনাক্ত হওয়ার পর স্থানীয়রা বিজিবি ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) সহায়তায় মরদেহটি শূন্যরেখা থেকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

পাটগ্রাম থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) মোজাম্মেল হক বলেন, মৃত তরিকুলের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তার গলায় গুলির চিহ্ন রয়েছে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য