মসজিদে শিশুদের মক্তব পড়া শেষে কৌশলে প্রতিবন্ধী শিশুসহ দুইশিশুকে ধর্ষণ করার অভিযোগে নীলফামারীর ডোমার উপজেলায় আলী আকবর (৫৬) নামের এক ইমামকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার (০৪ জুলাই) রাত সাড়ে ১১ টার দিকে উপজেলার বোড়াগাড়ি ইউনিয়নের নওদাবস এলাকায় মসজিদের পাশে হতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে রবিবার সকাল ১০টার দিকে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতার আলী আকবরের বাড়ি পাশের ডিমলা উপজেলার আকাশকুড়ি এলাকায়।

ডোমার থানার অফিসার্স ইনচার্জ মো. মোস্তাফিজার রহমান ঘটনার জানান, প্রতিবন্ধি শিশুটির মা বাদি হয়ে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছে।

মামলা সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার বোড়াগাড়ি ইউনিয়নের নওদাবস এলাকার একটি মসজিদের ইমাম আলী আকবর সকালে ওই এলাকার শিশুদের মসজিদের ভিতরে মক্তব পড়ান। শনিবার সকালে মক্তবের ছুটি হলে, ওই শিশু দুটিকে তিনি মসজিদের পাশে তার থাকার ঘরে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন। পরে শিশু দুটি ধর্ষণের বিষয়টি না জানাতে ভয় দেখানো হয়।

এক পর্যায়ে প্রতিবন্ধি শিশুটি তার মাকে ধর্ষণে বর্ণনা দেয়। এসময় ধর্ষণের শিকার তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীটিও বিষয়টি প্রকাশ করে। পরে এলাকাবাসী আলী আকবরকে রাতে আটক করে থানায় খবর দিলে ডোমার থানা পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

ওসি মোস্তাফিজার রহমান জানান, শিশুদের রাতেই নীলফামারী সদর আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে। এসময় অভিযুক্ত ধর্ষক আলী আকবর এলাকাবাসীর সামনে নিজের দোষ স্বীকার করেন।

অপরদিকে ডোমারে জমিতে হাল চাষের জন্য সেচ পাম্পের বিদ্যুতের তার সরানোর সময় তারের সাথে জড়িয়ে ফিরোজুল ইসলাম (৫২) নামের এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার সকাল ১১ টার দিকে উপজেলার বোড়াগাড়ি ইউনিয়নের বাগডোগড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ফিরোজুল বাগডোকরা হাজী পাড়া গ্রামের মৃত শাহাজাতুল্লা সরকারের ছেলে।

ওসি জানান, কোনো অভিযোগ না থাকায়, লাশ দাফনের জন্য পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য