রংপুরের পীরগাছায় পুকুর থেকে আকলিমা বেগম (৩০) নামে এক পুলিশ কর্মকর্তার স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

নিখোঁজের ২০ ঘণ্টা পর বৃহস্পতিবার বিকেলে সদর ইউনিয়নের তালুক ইসাদ ডারারপাড় গ্রামের বাড়ির পাশের পুকুর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পীরগাছা থানা পুলিশ। নিহত আকলিমা বেগমের স্বামী ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের তুরাগ থানায় কর্মরত এসআই ফজল মাহমুদ।

এলাকাবাসী ও স্বজনরা জানান, ওই গ্রামের নুরুল হকের মেয়ে আকলিমা বেগমের সঙ্গে কুড়িগ্রামের উলিপুর থেতরাই এলাকার ফজল মাহমুদের দীর্ঘদিন আগে বিয়ে হয়।

বিয়ের পর ফজল মাহমুদ তার শ্বশুড় বাড়ির সংলগ্ন বসতবাড়ি করে বসবাস করে আসছিলো। বুধবার রাত ৮টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে বাবার বাড়িতে তরকারি আনতে যান তিন সন্তানের জননী আকলিমা বেগম।

এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন। আত্মীয়-স্বজনের বাড়িসহ সর্বত্র খুঁজেও তাকে পাওয়া যায়নি। তার স্বামী ফজল মাহমুদ স্ত্রী নিখোঁজের সংবাদ পেয়ে ঢাকা থেকে আজ বৃহস্পতিবার সকালে বাড়িতে চলে আসে।

বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টার দিকে বাড়ির পাশের একটি পুকুরে আকলিমার মরদেহ ভাসতে দেখে পুলিশকে খবর দেয় এলাকাবাসী। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

রংপুরের সহকারি পুলিশ সুপার (সি-সার্কেল) আরমান হোসেন ও পিবিআই ক্রাইমসিন এর উপ-পরিদর্শক সাইফুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ বিষয়ে পীরগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে কিছু বলা যাচ্ছে না। ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য