আনোয়ার হোসেন নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের পর মৃত্যু ভেবে ফেলে যায় সন্ত্রাসীরা। এই ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার ৩০ জুন সকাল ৯ টায় উপজেলার কোদালকাটি ইউনিয়নে।

নিজের প্রয়োজনে দের লক্ষ টাকা নিয়ে রাজিবপুর বাজারে যাওয়ার পথে উৎপেতে থাকা সন্ত্রাসীরা, হঠাৎ পাট ক্ষেত থেকে বেরিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ছিনতাই করে।

সন্ত্রাসীরা মৃত্যু ভেবে পাট ক্ষেতে ফেলে রেখে চলে যায়। পাট ক্ষেতের আশপাশে থাকা লোকজন আনোয়ার হোসেন এর আত্মচিৎকারে এগিয়ে আসলে রক্তাক্তবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে রাজিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সে ভর্তি করা হয়।

পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সের দায়িত্বরত কর্মকর্তা প প ডাঃ দেলোয়ার হোসেন রোগীর অবস্থা আসংকাজনক হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেলে রেফার্ড করেছেন বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে রাজিবপুর থানায় ছিনতাইকারীদের নাম উল্লেখ করে, মামলা করেছেন ভুক্তভোগীর ভাই কেরামত আলী। আসামিদের মধ্যে মিলন মিয়া (২৮) পিতা শাহাজামাল, জবেদুল ইসলাম (২০) পিতা রহম আলী, ফরিদ উদ্দিন (২৮) পিতা চান মিয়া সর্ব সাং চর সাজাই ,ইউনিয়ন কোদালকাটি,উপজেলা রাজিবপুর। এ ছাড়া আরও ৫/৭ জনকে আসামি করে রাজিবপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়।

এ ব্যাপারে রাজিবপুর থানার ইনর্চাজ গোলাম মোর্শেদ তালুকদার জানান অভিযোগ পেয়েছি সাথে সাথে লোক পাঠানো হয়েছে। আসামিরা যেখানেই থাকনা কেন ওদের আইনের আওতায় আনা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য