আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা ও পাটগ্রাম উপজেলায় বজ্রপাতে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন ৬ জন।

বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) সকাল ১০টার দিকে হাতীবান্ধা উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়ন ও পাটগ্রাম উপজেলার দহগ্রাম ইউনিয়নে এ বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে।

মৃতরা হলেন- জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়নের কালিবাড়ী দোলায় মাছ মারতে গিয়ে পুর্ব বেজগ্রাম এলাকার রমজান আলীর ছেলে মন্টু মিয়া (৪০) ও আবদুল হামিদের ছেলে আতি (৩৮), পাটগ্রাম উপজেলার দলগ্রাম ইউনিয়নের করিমপুর গ্রামের খন্দকার আলীর ছেলে জাহেদুল ইসলাম (২৬) ও একই গ্রামের জহির উদ্দিনের ছেলে রাকিব হাসান (২৪)। এছাড়া বজ্রপাতে পাটগ্রামের বাচ্চা মিয়া, সফিকুল ইসলামসহ বিভিন্ন এলাকার অন্তত ৬ জন আহত হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, হাতীবান্ধা উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়নের কালিবাড়ির বিলে পানি বেড়ে যাওয়ার কারণে মাছ ধরতে যান। ওই সময় মন্টু মিয়া ও আতি বজ্রপাতে আহত হলে সহযোগীরা আহত অবস্থায় হাতীবান্ধা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যান। একই ঘটনা ঘটে পাশ্বর্বতী উপজেলা পাটগ্রামে। বৃষ্টিতে স্যাকোয়া নদীতে পানি বেড়ে যায়। সকালে ৭/৮ মিলে স্যাকোয়া নদীতে মাছ ধরতে যান। এসময় হঠাৎ বজ্রপাত শুরু হলে রাকিব ও জাহেদুল ঘটনাস্থলে মারা যান।

হাতীবান্ধা থানার ওসি ফারুক হোসেন ও পাটগ্রাম থানার ওসি তদন্ত মোজাম্মেল হক সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, দুই উপজেলার আহত ৬ জনকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় পাটগ্রাম ও রংপুর মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য