রংপুর বিভাগে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই হাজার ছাড়িয়েছে। এদের মধ্যে প্রায় দেড় হাজার করোনা রোগী সুস্থ হয়েছেন। এ বিভাগে সুস্থ হওয়ার হার শতকরা ৫৪ ভাগ।

এছাড়া এখন (২৬ জুন) পর্যন্ত বিভাগের ৮ জেলায় মৃত্যু হয়েছে ৪৮ জনের। যাদের বেশির ভাগই বৃদ্ধ ও নানা জটিলরোগে ভুগছিলেন। শনাক্তের বিবেচনায় বিভাগে মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৮৯ ভাগ।

শনিবার (২৭ জুন) দুপুরে রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের কার্যালয় সূত্রে এ তথ্য জানানো হয়।

সূত্র জানায়, রংপুর বিভাগে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের ২ হাজার ৫৪১ জনের মধ্যে এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৩৮০ জন সুস্থ হয়েছেন। এর মধ্যে রংপুর জেলায় ৮৫৩ জনের মধ্যে ৪৭৮ জন, পঞ্চগড়ের ১৩২ জনের মধ্যে ৮১ জন, নীলফামারীতে ৩২৭জনের মধ্যে ২১৮ জন, লালমনিরহাটে ৮৯ জনের মধ্যে ৫১ জন। কুড়িগ্রাম জেলার ১৩০ জনের মধ্যে ৭৬ জন, ঠাকুরগাঁওয়ে ২০০ জনের মধ্যে ১১০ জন, দিনাজপুরে ৫৬৩ জনের মধ্যে ২৯৫ জন এবং গাইবান্ধায় ২৪৭ জনের মধ্যে ৭১ জন।

এছাড়াও এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ৪৮ জনের মধ্যে রংপুরে ১৫ জন, দিনাজপুরে ১১ জন, গাইবান্ধায় ৯ জন, নীলফামারীতে ৬ জন, পঞ্চগড়ে ৩ জন, ঠাকুরগাঁওয়ে ২ জন এবং লালমনিরহাট ও কুড়িগ্রাম জেলায় ১ জন করে রয়েছেন।

এদিকে রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. আমিন আহমেদ খান বলেন, করোনায় আক্রান্তরা দ্রুত সুস্থ হচ্ছেন। এ বিভাগে সুস্থ হওয়ার হার শতকরা ৫৪ ভাগ। তবে যারা করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন তাদের বেশি ভাগই ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, শ্বাসকষ্টসহ বয়সজনিত রোগে ভুগছিলেন।

তিনি আরও বলেন, সাধারণ রোগীদের টেলিমেডিসিন সেবা ও পরামর্শে বাড়িতে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। যারা একটু সংকটাপন্ন রোগী তাদেরকে রংপুর ডেডিকেটেড করোনা আইসোলেশন হাসপাতালে এনে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এতে করে এ বিভাগে সুস্থতার হার দিন দিন বেড়ে চলছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য