আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ বিশেষায়িত ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারো স্পেস ইউনিভার্সিটি’র জন্য লালমনিরহাটে ৬৩৮ দশমিক ৫৪২৮ একর জমি অধিগ্রহণের কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

বুধবার (২৪ জুন) ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারো স্পেস ইউনিভার্সিটি’র জমি অধিগ্রহণের কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানাগেছে, লালমনিরহাট সদর উপজেলার বিমানবন্দর ও বিমান বাহিনী সংলগ্ন এলাকায় এই বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য ১১টি মৌজায় ৫৮৬ দশমিক ২২০৩ একর ও স্থানীয়দের পুনর্বাসনের জন্য ৫২ দশমিক ৩২২৫ একর জমি অধিগ্রহণের জন্য যাবতীয় কাগজসহ লালমনিরহাট জেলা প্রশাসকের হাতে আবেদনপত্র জমা দেন উপাচার্য এয়ার ভাইস মার্শাল ফজলুল হক। এসময় লালমনিরহাট বিমান বাহিনীর স্টেশন অফিসার উইং কমান্ডার খায়রুল মামুন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) রাশেদুল হক প্রধান, লালমনিরহাট পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা ও উপাচার্যের সাথে আসা ৯ জন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

লালমনিরহাটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) রাশেদুল হক প্রধান বলেন, সদর উপজেলার হারাটি ও মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের ১১টি মৌজার মোট ৬৩৮ দশমিক ৫৪২৮ একর জমি অধিগ্রহণের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজসহ আবেদনপত্র পেয়েছি। আমরা সর্বোচ্চ স্বচ্ছতা নিশ্চিত করার চেষ্টা করবো। তিনি আরও বলেন, কিসমত হারাটির ৪৫ দশমিক ৯৮৫০, নামুড়ী হারাটির ৯৮ দশমিক ৬৩০০, ফকিরটারী ১০০ দশমিক ৮৭৭৫, আটবিলের ১৪৫ দশমিক ৪০২৫, আটবিল দর্পলষ্করের ২৯ দশমিক ৩৭০০, তালুক হারাটির ৭৭ দশমিক ৩৬১০, পশ্চিম আমবাড়ির ৩০ দশমিক ৮০৭৫, হাড়ীভাঙার ৫৪ দশমিক ১২৬৮, চিনিপাড়ার ৩ দশমিক ৬৬০০ একর জমি বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য এবং আটবিলের ৪৩ দশমিক ৬০৫০, আরাজি চোঙাদারার ৮ দশমিক ৭১৭৫ একর জমি স্থানীয়দের পুনর্বাসনের জন্য অধিগ্রহণের প্রস্তাব করা হয়েছে।

লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর বলেন, ‘দ্রুত জমি অধিগ্রহণ কার্যক্রম শেষ করা হবে। বিশ্ববিদ্যালয়টির অবকাঠামো নির্মাণ কাজ ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে শুরু হতে পারে।’

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারো স্পেস বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের জন্য বিলটি জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করলে, তা সংসদ সদস্যদের কণ্ঠ ভোটে পাস হয়। এরপরই ভিসি হিসেবে নিয়োগ পান এয়ার ভাইস মার্শাল এএইচএম ফজলুল হক। রাজধানী ঢাকার পুরাতন বিমানবন্দরের অস্থায়ী ক্যাম্পাসে ২০২০-২০২১ শিক্ষা বর্ষে প্রথম শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়। লালমনিরহাটে অবকাঠামো নির্মাণ কাজ শেষ করা হলে স্থায়ীভাবে ক্যাম্পাস সরিয়ে আনা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য