আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে জনতাব্যাংক লিমিটেড পলাশবাড়ী শাখার অফিসার ক্যাশ ফজলুল করিম (৩৮) নোভেল করোনা পজেটিভ হওয়ায় ব্যাংকিং কার্যক্রম সম্পূর্ণ বন্ধ থাকবে। সেইসাথে উপজেলা প্রশাসনের সার্বিক নির্দেশনায় সোমবার ২২ থেকে ২৭ জুন শনিবার ৬ দিন ব্যাংক ভবন লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

উপজেলা করোনা ভাইরাস কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. কামরুজ্জামান নয়নের নেতৃত্বে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব একেএম মোকছেদ চৌধুরি বিদ্যুৎ ও পৌর প্রশাসক আবু বকর প্রধানসহ সকাল ১১টায় সরেজমিন পৌরশহরের মহাসড়ক ঘেঁষে অবস্থিত ব্যাংক ভবনে গিয়ে লক ডাউন ঘোষণা করেন।

ব্যাংকার ফজলুল করিম করোনায় আক্রান্ত এবং লকডাউন ঘোষণার বিষয়ে মুঠোফোনে এসময় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বিদ্যুৎ চৌধুরীর নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান, ব্যাংকার ফজলুল করিম করোনা সংক্রমণের বিষয়টি উপজেলা কমিটি আগেই জানতে পান। রোববার বিকেলে অত্র শাখা ব্যবস্থাপক ছাড়াও ব্যাংকের গাইবান্ধার জোনাল কার্যালয়ের সাথে এব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহনে এক আলোচনা শেষে সোমবার সকালে লকডাউন ঘোষণা করা হয়।

ব্যাংক ক্যাশিয়ার ফজলুল করিম করোনা ভাইরাস পজেটিভ ঘোষিত হন রোববার ২১ জুন। এদিন তিনি ব্যাংকে যথারীতি তার দায়িত্ব পালন করেছেন। এরমাত্র দু’দিন আগে ১৯ জুন শুক্রবার তার আপন বড় জ্যাঠা করোনায় পজেটিভ হয়ে মারা যান। জ্যাঠার দাফন কাফনসহ সৎকারে তিনি অংশ নেন। ১৭ জুন ফজলুল করিমের করোনা উপসর্গের নমুনা নেয়া হয়। এর আগে এবং পরে প্রতি কার্যদিবসেই তিনি অফিস করেছেন।

ফলে; উপজেলা প্রশাসনের প্রতিয়মান হয় সম্ভাব্য ভাইরাস ছড়াতে পারে। সাদুল্লাপুরের ভাতগ্রাম ইউনিয়নের ভাতগ্রামের ফজলুল করিম তার সাদুল্লাপুরের ভাতগ্রামে তার নিজ বাড়ীতে হোম কোয়ারান্টাইন রয়েছেন। ব্যাংকের পলাশবাড়ী শাখার সিনিয়র অফিসার মোছা. হাবিবা জাহান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য