ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে রমনী চন্দ্র কান্ত (৭২)নামে এক মুক্তিযোদ্ধার ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আজ রবিবার সকাল ১০ টায় উপজেলার আলাদিপুর ইউনিয়নের ওই মুক্তিযোদ্ধার নিজ গ্রাম গকুল উত্তর পড়ার কটি আমগাছে ঝুলে থাকা অবস্থায় উদ্ধার করে।

রমনী চন্দ্র রায় উপজেলার আলাদিপুর ইউনিয়নের গোকুল গ্রামের মৃত মতিলাল রায়ের ছেলে অবসরপ্রাপ্ত সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) ছিলেন।

প্রতিবেশিরা জানান, রবিবার সকালে গ্রামের লোকজন নিজ নিজ কাজে গ্রামের পশ্চিম পার্শ্বের জমিতে কাজ করতে গেলে ওই এলাকার একটি আম গাছের সাথে বীর মুক্তিযোদ্ধা রমনী চন্দ্র রায়ের ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পান। পরে বিষয়টি থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

বীর মুক্তিযোদ্ধা রমনী চন্দ্র রায়ের স্ত্রী ছবি রানী রায় বলেন, চাকরি থেকে অবসরের পর বেকার হয়ে পড়েছিলেন রমনী চন্দ্র রায়। বাড়ীতে তেমন কারো সাথে কোন ঝগড়া বিবাদ ছিল না। প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া বাড়ীতে তারা বসবাস করেন। শনিবার রাতে এক সাথে ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। কিন্তু কখন তিনি ঘর থেকে বের হয়ে গেছেন তিনি তা বলতে পারেন না। তিনি কেন আত্মহত্যার পথ বেঁছে নিয়েছেন তা ভগবান ছাড়া কেউ বলতে পারবে না।

থানার পরিদর্শক (ওসি-তদন্ত) মো. মাহামুদুল হাসান বলেন, মরদেহের সুরতহাল দেখে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে এটি আত্মহত্যা। তবে তাঁর পরিবারের পক্ষ থেকে কারো বিরুদ্ধে কিংবা মৃত্যু নিয়ে কোন সন্দেহ-সংশয় না থাকায় সৎকার্য করার জন্য মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আব্দুস সালাম চৌধুরী বলেন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার এছার উদ্দিনের কাছে বিষয়টি শুনেছেন। রবিবার দুপুর দুইটায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীর মুক্তিযোদ্ধা রমনী চন্দ্র রায়ের শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য