এই সময় অনেক কিছুর সঙ্গে আমরা ব্রণ নিয়েও চিন্তিত। কেউবা ব্রণের চিকিৎসা করেও কোনো সমাধান পাননি। ক্রিম মেখেও কাজ হয়নি। পুনরায় ব্রণ দেখা দিয়েছে মুখে।

আপনি যদি এমন কোনো সমস্যায় জর্জরিত হন, তাহলে শুরু করুন ঘরোয়া চিকিৎসা।

ব্রণ নির্মূল হতে সময় লাগবে, কিন্তু নির্মূল হওয়ার আশা রাখা যায়। হিতে বিপরীত হওয়ার আশঙ্কা থাকে না। অন্যদিকে স্কিনের ক্রিমের দাম হয় অনেক। প্রতি মাসে যা খরচ করা সম্ভব হয় না।

অন্যদিকে ঘরোয়া উপায়ে আপনি মুখের কালো দাগের থেকে পেতে পারেন অব্যাহতি। এমনকি ফিরে পেতে পারেন আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা এবং কোমলতা।

যা করবেন-

  • হলুদ গুঁড়া এবং দইয়ের সঙ্গে এক চামচ মধু মিশিয়ে নিন। এটি একসঙ্গে আপনার মুখ এবং ঘাড়ে মাখুন, হালকা করে আঙুলের মাথা দিয়ে ধীরে ধীরে মালিশ করুন। এরপর ১০ মিনিট রাখুন এবং ঠাণ্ডা পানিতে আপনার মুখ ধুয়ে ফেলুন।
  • একটি কাপড়ে একটি বরফের টুকরো নিয়ে মুখে ঘষুন। মুখে লেগে থাকা হলুদের গুড়োকে তুলে ফেলুন। এতে আপনার মুখের ছিদ্রগুলো বন্ধ করতে সহায়তা করবে, লালভাব বা জ্বালা কমাবে। এতে ব্রণ থেকে মুক্তি পারেন।
  • হলুদ এবং মধুতে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল গুণ রয়েছে। হলুদ গুঁড়া ছাড়াও ব্রণ-দাগকে হ্রাস করে যখন মধুর সঙ্গে মিশছে। ত্বককে হাইপারপিগমেন্টেশন থেকে দূরে রাখে। দই ঝলমলে ত্বক ফিরিয়ে আনে। ত্বকের জ্বালা কমিয়ে দেয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য