কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের কুটির গ্রাম এলাকায় করোনা উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকাকালীন বৃহস্পতিবার (১১ জুন) সকালে তিনি মারা যান।

ওই ব্যক্তির নাম শফিকুল ইসলাম (৪২)। সে কুটির গ্রাম এলাকার নাসির মিয়ার ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, শফিকুল ইসলাম সপ্তাহ খানেক আগে নারায়ণগঞ্জ থেকে জ্বর, সর্দি ও পেট ব্যথা নিয়ে চিলমারীর বাড়িতে আসেন। এরপর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যোগাযোগ করা হলে তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়। এ অবস্থায় রাতে শরীরিক অবস্থার অবনতি হলে বৃহস্পতিবার সকালে মারা যায়।

রানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল ইসরাম মঞ্জু জানান, শফিকুল ইসলাম করোনার উপসর্গ নিয়ে নারায়ণগঞ্জ থেকে আসলে চিলমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বারবার নমুনা সংগ্রহ করতে বলা হলেও তারা নমুনা সংগ্রহ করেননি।

চিলমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আমিনুল ইসলাম জানান, জনবল সংকটের কারণে আগে নমুনা সংগ্রহ করা যায়নি। বৃহস্পতিবার মারা যাওয়ার পর মৃতের এবং তার পরিবারের লোকজনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ ডব্লিউ এম রায়হান শাহ জানান, ওই বাড়িতে গিয়ে মৃতের কোন স্বজনকে পাওয়া যায়নি। করোনা উপসর্গে মারা যাওয়ার কারণে কেউ দাফনে অংশ নিতে চাচ্ছেন না। ফলে ইসলামী ফাউন্ডেশনের লোকজনকে নিয়ে জানাজা এবং দাফন করতে হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য