ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ এবারে চলতি মৌসমে দিনাজপুরে ঘোড়াঘাট উপজেলায় বেড়েছে ভূট্টার আবাদ। ধানের আবাদের চেয়ে ভুট্টার আবাদে ঝুকে পরেছে এ এলাকার চাষিরা।

এবারে করোনা ভাইরাসের কারনে ধানের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা সম্ভব না হলেও ভূট্টা আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। সংশ্লিষ্টরা বলছে,কয়েকবার ধান আবাদ করে লোকসান গুনে এখানকার কৃষকরা ঝুঁকছেন ভূট্টা আবাদে।

বর্তমান বাজার মুল্য কম থাকলেও খুশি এ অঞ্চলের ভূট্টা চাষিরা।ঘোড়াঘাট উপজেলায় ভুট্টার আবাদ হয়েয়ে প্রায় ২২ হাজার হেক্টর জমিতে,যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়েও বেশী আবাদ হয়েছে। কারন ইরি-বুরো ধান আবাদে খরজ বেশী কিন্তু ভুট্টা আবাদে খরজ কম মুনাফা বেশী বলে কুষকরা ঝুকে পরেছে ভুট্টার আবাদে।

ঘোড়াঘাট উপজেলায় ভূট্টা আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল ১৬ হাজার হেক্টর জামিতে। তবে আবাদ হয়েছে ২২-হাজার হেক্টর জমিতে। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৬-হাজার হেক্টর বেশী আবাদ হয়েছে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ধানের চেয়ে ভূট্টা আবাদ করে কৃষকরা লাভবান হয়েছে। আর এর ফলে বেড়েছে ভূট্টার আবাদ।ঘোড়াঘাট উপজেলার ক্ষেত গুলোতে ভূট্টা কাটা-মারা প্রায় শুরু হয়েছে ।

চাতাল গুলোতে চলছে মাড়াইসহ শুকানোর কাজ। ভূট্টা চাষিরা বলছেন, আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় ভূট্রার বাম্পার ফলন হয়েছে। প্রতি বিঘায় ফলন হচ্ছে ৩৫ থেকে ৪০ মন। এখানকার আড়ৎ গুলোতে প্রতিমন ভূট্টা বিক্রি হচ্ছে সাড়ে ৪শ থেকে সারে ৫শ টাকা দরে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য