করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘ আড়াই মাস বন্ধ থাকার পর সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে আগামী বুধবার (১০জুন) বুড়িমারী স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি বাণিজ্য শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্থলবন্দর ব্যবহারকারী (সিঅ্যান্ডএফ) ব্যবসায়ীরা।

বুড়িমারী স্থলবন্দর চেকপোস্ট এলাকার শুণ্যরেখায় সোমবার (৮জুন) বিকেলে বিজিবি ও বিএসএফের উপস্থিতিতে এক বৈঠকে বাংলাদেশী ও ভারতীয় ব্যবসায়ীদের মধ্যে একসভায় এ সিদ্ধান্ত নেন।

বৈঠকে বাংলাদেশি দশ সদস্য বিশিষ্ট ব্যবসায়ী দলের নের্তৃত্ব দেন বুড়িমারী স্থলবন্দর আমদানি-রপ্তানীকারক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও পাটগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রুহুল আমীন বাবুল ও ভারতীয় দশ সদস্য বিশিষ্ট ব্যবসায়ী দলের নের্তৃত্ব দেন চ্যাংরাবান্ধা এক্সপোটার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক বিমল সাহা।

সভায় উভয় দেশের কাস্টমস্ কমিশনার, বন্দর উপ-পরিচালক, সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট থানার ওসি, স্থলবন্দর ইমিগ্রেশন ইনচার্জগণ উপস্থিত ছিলেন।

বুড়িমারী স্থলবন্দর আমদানি- রপ্তানীকারক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও বুড়িমারী ইউপি চেয়ারম্যান আবু সাঈদ নেওয়াজ নিশাত জানান, বাংলাদেশ ও ভারতীয় ব্যবসায়ীদের মধ্যে আলোচনা করে শতভাগ স্বাস্থবিধি মেনে আগামী বুধবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত আমদানি-রপ্তানী কার্যক্রম চালু করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এতে ভারত, ভুটান ও নেপালের সাথে বুড়িমারী স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি- রপ্তানী কার্যক্রম চালু হবে। দীর্ঘ দিন থেকে বন্ধ থাকার কারণে ব্যবসায়ীদের ব্যাপক লোকসান হয়েছে। এই লোকসান পুষিয়ে নিতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য