লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার চলবলা ইউনিয়নে ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ৫০টি পরিবারের মাঝে সরকারি সহায়তা হিসেবে ২ বান্ডিল ঢেউটিন এবং ৬ হাজার টাকার চেক বিতরণ করেছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়।

শনিবার(৬জুন) দুপুরের দিকে উপজেলা নব নির্মিত অডিটোরিয়াম হল রুমে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে এসব ঢেউটিন ও টাকার চেক বিতরণ করা হয়।

এতে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাহব্বুরজামান আহমেদ ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রবিউল হাসান ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যদের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে সরকারি সহায়তার এসব ঢেউটিন ও টাকার চেক তুলে দেন। এ সময় চলবলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজু সাথে ছিলেন।

এর আগে সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ মুঠোফোনে ক্ষতিগ্রস্তদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য দেন। তিনি বলেন, ঝড়ে ২৫৯ জনের বাড়ির ক্ষতি হয়েছে। এর মধ্যে ৫০জন বেশিক্ষতিগ্রস্থদের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় পক্ষ থেকে সরকারি সহায়তা করা হলো। এরপর বাকিদের সরকারি সহায়তা করা হবে। সরকার অসহায় পরিবারের পাশে সব সময়ে থেকে কাজ করে যাচ্ছে।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) ফেরদৌস আলম, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাহাঙ্গীর হোসেন ও তুষভান্ডার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুর ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, দুদিন আগে চলবলা ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামের ওপর দিয়ে আকস্মিক ঝড় যায়। এতে একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ অনেকের ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হয়। খবর পেয়ে উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় ছুটে যান। সেইসঙ্গে ঘটনাটি স্থানীয় সংসদ ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজামান আহমেদসহ জেলা প্রশাসককে অবহিত করা হয়। এরই-প্রেক্ষিতে তাদের পরামর্শ অনুযায়ী প্রাথমিকভাবে ৫০টি ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে সরকারি সহায়তা হিসেবে ঢেউটিন ও চেক বিতরণ দেওয়া হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য