পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষ্যে দুঃস্থ্যদের মাঝে বিতরণের ভিজিএফের চাল আত্মসাতের অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় বিরল উপজেলার ইউপি সদস্য মতিউর রহমান মতি’কে ইউপি সদস্যের পদ হতে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

গতকাল বিকেলে স্থানীয় সরকার বিভাগের দিনাজপুরের উপ-সচিব মোহাম্মদ ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানা যায়।

উপ-সচিব মোহাম্মদ ইফতেখার আহমেদ চৌধুরীর স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে, বিরল উপজেলার ৮ নম্বর ধর্মপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারন সদস্য মতিউর রহমান মতির বিরুদ্ধে ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষ্যে দুস্থ্যদের মাঝে বরাদ্দকৃত ভিজিএফের চাল আত্মসাতের অভিযোগ তদন্তে প্রমানিত হওয়ার প্রেক্ষিতে কারণ দর্শানো হয়।

কারণ দর্শানোর জবাব সন্তোষজনক বিবেচিত না হওয়ায় জেলা প্রশাসক, দিনাজপুর ইউপি সদস্য মতিউর রহমান মতির বিরুদ্ধে স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন ২০০৯ এর ৩৪ ধারা অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহনের সুপারিশ করেন।

জেলা প্রশাসকের সুপারিশক্রমে ইউপি সদস্য মতিউর রহমান মতির বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় জনস্বার্থে তাঁর দ্বারা ইউনিয়ন পরিষদের ক্ষমতা প্রয়োগ প্রশাসনিক দৃষ্টিকোণে সমীচীন নয় মর্মে সরকার ইউপি সদস্য মতিউর রহমান মতি কর্তৃক সংঘটিত অপরাধমুলক কার্যক্রম পরিষদসহ জনস্বার্থের পরিপন্থী বিবেচনায় স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষধ) আইন ২০০৯ এর ৩৪(১) ধারা অনুযায়ী ইউপি সদস্য মতিউর রহমান মতিকে তাঁর স্বীয় পদ হতে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো।

এ আদেশ যথাযথ কর্তৃপরে অনুমোদনক্রমে জনস্বার্থে জারী করা হলো এবং অবিলম্বে কার্যকর করা হবে বলেও প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, বিরল উপজেলার ৮ নম্বর ধর্মপুর ইউনিয়নের কামদেবপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে ওই ইউপির ৮নম্বর ওয়ার্ডের সাধারন সদস্য মতিউর রহমান মতির বিরুদ্ধে ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে দুস্থ্যদের মাঝে বিতরণের ভিজিএফের জনপ্রতি ১৫ কেজি করে ২৬ জনের নামীয় চাল উত্তোলন করে আত্মসাতের অভিযোগ করেছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য