দিনাজপুর সংবাদাতাঃ করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সাংবাদিকতা পেশার পাশাপাশি করোনা ভাইরাস সম্পর্কে হাট-বাজারে সচেতনতা সৃষ্টি, লিফলেট, মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ, ঢাকা, নারায়নগঞ্জ ও গাজীপুর সহ দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আগতদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখতে প্রশাসনকে সহায়তা, শ্রমজীবি কর্মহীন অসহায়-দুস্থ ব্যক্তিদের বাড়িতে খাদ্য সহায়তা পৌছানো, দূর্ঘটনা ও গর্ভবতী মা সহ অসুস্থদের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিৎকরণে ফ্রি এ্যাম্বুলেন্স সেবা, জরুরি ভিত্তিতে রক্ত সংগ্রহ করা, রক্ত দাতাকে মোটরসাইকেলে করে নিরাপদে হাসপাতালে নিয়ে আসা ও বাড়িতে পৌছানো, ছিন্নমূল ও অসহায় ব্যক্তিদের ইফতার বিতরণ, ঈদ সামগ্রী বিতরণ, দুঃস্থ নারীকে পুর্নবাসনসহ বিরামহীনভাবে ছুটে চলছেন চিরিরবন্দর অনলাইন প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক ও আমাদের সময় পত্রিকার চিরিরবন্দর উপজেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক মাহাফুজুল ইসলাম আসাদ।

তিনি এই করোনা ভাইরাসের ক্রান্তিকালে উপজেলার চার জন তরুনকে নিয়ে “পাশে দাঁড়াও” নামে একটি সংগঠন তৈরি করেন। পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচারণা চালিয়ে উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন ১১ সদস্যের একটি করে টিম তৈরি করে। বর্তমানে সংগঠনটির প্রায় দেড় শতাধিক স্বেচ্ছাসেবকের স্বেচ্ছায় শ্রমের মাধ্যমে হাটে-বাজারে সচেতনতা সৃষ্টি, অসহায়-দুস্থদের বাড়িতে খাদ্য সহায়তা পৌছানো, রক্ত সংগ্রহ ও রক্ত দাতাকে নিয়ে আসা ও বাড়িতে পৌছানো, ফ্রি তে এ্যাম্বুলেন্স সেবা প্রদান সহ যাবতীয় কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন।

তিনি ব্যক্তিগত, টিমের সদস্য ও সমাজের বিত্তবানদের সহযোগিতায় এ পর্যন্ত ৪২ জন রোগীকে ফ্রীতে এ্যাম্বুলেন্স সেবা, ১৮ জন রোগীকে রক্ত সংগ্রহ, রমজান মাসজুড়ে ১৪ শত অসহায় রোজাদারকে ইফতার বিতরণ, তৃনমুল পর্যায়ের অসহায়-দুস্থ, বিধবা, বয়স্ক মা সহ ৫ শত অসহায় পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী উপহার প্রদান, ৫শত পরিবারে ঈদ সামগ্রী প্রদান, কয়েকজন অসহায় মাকে পুনঃবাসন সহ তাদের খাদ্য নিশ্চিতকরণ এবং একজন নারীর কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেন।

পাশে দাঁড়াও এর আহবায়ক সাংবাদিক মাহাফুজুল ইসলাম আসাদ বলেন, করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবে সামাজিক দায়বন্ধতা ও বিবেকের তাড়নায় চিরিরবন্দর উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নের তৃণমূল পর্যায়ের অসহায়-দুস্থ মানুষদের কথা চিন্তাই করেই সচেতনতা সৃষ্টি, লিফলেট, মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ, খাদ্য সহায়তা প্রদান, ইফতার বিতরণ, ঈদ সামগ্রী বিতরণ, দুঃস্থ মায়েদের পুর্নবাসন, রক্ত সংগ্রহ, চিকিৎসাসেবা নিশ্চিতকরণে ফ্রিতে এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস সেবা প্রদান করতেছি।

“পাশে দাঁড়াও” সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা চিরিরবন্দর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লায়লা বানুর পরামর্শক্রমে এসব কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছি। করোনা মহামারী পরিস্থিতি শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এ ধরনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। আর এজন্য “পাশে দাঁড়াও” সংগঠনের পাশে সরকারী-বেসরকারী সংস্থা, সংগঠন ও বিত্তবানসহ সকলকে এগিয়ে আসার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য