জাকির হোসেন , সৈয়দপুর, নীলফামারী প্রতিনিধিঃ দীর্ঘ আড়াই মাস পর আবারো সৈয়দপুর বিমানবন্দরে বিমান উঠা-নামা শুরু হয়েছে। করোনা প্রভাবে বন্ধ থাকার পর সোমবার (১ জুন) সকাল ৮টা ১০ মিনিটে নভোএয়ারের একটি উড়োজাহাজ সৈয়দপুর বিমানবন্দরে অবতরণ করেছে। ঢাকা থেকে ৪০ জন যাত্রী নিয়ে উড়োজাহাজটি সৈয়দপুর বিমানবন্দরে আাসে এবং ৫০ জন যাত্রী নিয়ে সৈয়দপুর থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায় সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে।

সরকারের সিদ্ধান্তের পর গত কয়েক দিন থেকে বিমানবন্দরটি স্বাভাবিক পরিবেশের উপযোগী করে গড়ে তুলেছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। অনেক দিন থেকে একেবারে নিশ্চুপ হয়ে পড়া উত্তরাঞ্চলের একমাত্র বিমানবন্দরটি আবারো প্রাণ চাঞ্চল্য ফিরে পেয়েছে।

সরকারী বিধি নিষেধ মেনে ঢাকা-সৈয়দপুর রুটে বিমান বাংলাদেশ, নভোএয়ার ও ইউএস বাংলার তিনটি করে ৯টি ফ্লাইট চলাচল করবে প্রতিদিন। স্বাভাবিক সময়ে এই পথে ১২টি করে ফ্লাইট আসা যাওয়া করতো।

আজ সকালে নভোএয়ারের পর ইউএস বাংলার ২টি ও বাংলাদেশ বিমানের ১টি ফ্লাইট এবং দুপুরে ইউএস বাংলা ও নভোএয়ারের আরও একটি করে ফ্লাইট ঢাকা থেকে সৈয়দপুরে এসে যথারীতি আবার চলে গেছে।

সন্ধায় ইউএস-বাংলা ও নভোএয়ারের আরও দুটি করে ফ্লাইট ঢাকা-সৈয়দপুর রুটে যাতায়াত করবে। এভাবে প্রতিদিন ৯টি করে উড়োজাহাজ চলাচল করবে।

সৈয়দপুর বিমানবন্দর ম্যানোজার শ্রী সুশান্ত দত্ত জানান, চলমান করোনা পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে যাত্রীদের স্বাস্থ্য সচেনতাসহ সুরক্ষার জন্য একটি থার্মাল স্ক্যানার বুথ স্থাপন করা হয়েছে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে। এতে বিমানবন্দরে প্রবেশকারী সকলের শারীরিক তাপমাত্রা পরিমাপ করা হচ্ছে।

৯৯ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড এর চেয়ে বেশি হলে বিমানবন্দরে প্রবেশে বাধা দেয়াসহ যাত্রীদের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা হচ্ছে। যদিও আজ অতিরিক্ত তাপমাত্রা বা অন্য কোন লক্ষ্মণ বা উপসর্গধারী কাউকে পাওয়া যায়নি। ভবিষ্যতে পাওয়া গেলে প্রশাসনের সহযোগিতায় যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য