রংপুরের অন্য তিন উপজেলার মতো কাউনিয়া উপজেলায়ও নির্বাচনী প্রচারনা এখন তুঙ্গে। আর মাত্র সাত দিন পর ১৯ মে নির্বাচনকে ঘীরে প্রার্থীদের চোখে ঘুম নেই, সাথে রয়েছে নেতা কর্মীরা। সবার টার্গেট এখন ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা।  প্রার্থীদের কেউ চলছেন পায়ে হেটে আবার কেউবা ছুটছেন ঘোড়ায় চরে কেউবা চার চাকার গাড়ী করে। দিবানিশী ভোট প্রার্থননায় ভোটারদের চোখের ঘুম হারাম করেছে। এমন অভিযোগ করলেন পূর্বচান্দঘাট গ্রামের আবু জাহের ও আবুল কালাম। প্রার্থীদের মধ্যে আওয়ামীলীগ সর্মিÑত আনোয়ারুণ ইসলাম মায়া (বর্তমান চেয়ারম্যান) তার মটর সাইকেল প্রতীকের পক্ষে কাজ করার জন্য প্রতিটি ওয়ার্ডে ৫১ সদস্য বিশিষ্ঠ কমিটি গঠন করে বেশ জোরেসোরে মাঠে ময়দান চষে বেড়াচ্ছেন। অপর প্রার্থী বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী আলহাজ্ব মাহফুজার রহমান মিঠু ঘোড়া প্রতীক নিয়ে দলীয় নেতা কর্মীদের সাথে নিয়মিত বৈঠক এবং প্রচারনায় ব্যস্ত আছেন। নাগরিক কমিটির ব্যানারে রয়েছেন অধক্ষ্য মোফাজ্জল হোসেন। তার দোয়াত কলম প্রতীক নিয়ে কাজ করছে তার সহকর্মী এবং ছাত্র এবং এলাকাবাসী। উপজেলা সদরের প্রার্থী কমরেড রফিকুল ইসলামের আনারস প্রতীক নিয়ে কাজ করছে ক্ষেত মজুরসহ বামপন্থী ও এলাকার নেতা কর্মীরা। জাতীয় পার্টির প্রার্থী সামছুল আলম ভরসার কাপ প্রিচ মার্কা নিয়ে সাধারন নেতা কর্মীরা যাচ্ছে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। অপর দিকে বসে নেই ভাইসচেয়াম্যান প্রার্থরা। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ সমর্থিক প্রার্থী সেলিনা তালুকদার শিউলী হাঁস প্রতীক নিয়ে, শেফালী খাতুন কলস প্রতীক নিয়ে এবং অঙ্গুরা বেগম ফুটবল প্রতীক নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন । বসে নেই ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) প্রার্থীরাও । আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক তালা প্রতীক নিয়ে, এডভোকেট মাজহারুল ইসলাম বাবলু টিউবয়েল প্রতীক নিয়ে এবং খায়রুল ইসলাম চশমা প্রতীক নিয়ে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে অহর্নিশী ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন । এবার কাউনিয়া উপজেলার ১ লাখ ৫৩ হাজার ৫০৯ জন ভোটারের মধ্যে ৭৪ হাজার ৯৭৫ পুরুষ আর ৭৮ হাজার ৫৩৪ জন মহিলা ভোটার। তাদের মতে এবার আর কারো কথায় মন ভুলবে না তারা নিজের ইচ্ছেই তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য