নীলফামারীর ডিমলায় উপজেলার টেপা খড়িবাড়ী ইউনিয়ন, খগা খড়িবাড়ী, গয়াবাড়ী ও খালিশা চাপানী এই ৪টি ইউনিয়নে তিস্তার চরে এবার ভুট্টার বাম্পার ফলন হওয়ায় প্রতিটি কৃষকের মুখে-মুখে হাসি ফুটেছে।

কিন্তুু দেশে মহামারী করোনা ভাইরাসের পাদুর্ভাবের কারণে কৃষকরা এখন দিশেহারা।

উল্লেখ্য যে, ডিমলা উপজেলার বিভিন্ন গ্রামেগঞ্জে মরিচ চাষীরা মরিচের দাম না পেয়ে সংসারে অনেক ক্ষতিসাধন হয়েছে বলে জানা।

ভুট্টা ও মরিচ চাষীরা বিভিন্ন এনজিও ও ব্যাংক হইতে ঋণ গ্রহন করে এসব কৃষি চাষ করেছে। তারা দুঃচিন্তায় পড়েছে কিভাবে এই ঋণ পরিশোধ করব।

এ বিষয় উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ সেকেন্দার আলী সংবাদকর্মীকে জানান, ডিমলা উপজেলায় এবার ভুট্টাচাষ হয়েছে ১১৭৫০ হেক্টর গতবারের তুলনায় অনেক বেশি ও মরিচ ৫২৫ হেক্টর আবাদ হয়েছে তার মধ্যে পূর্বে ২০৫ হেক্টর মরিচ উত্তোলন করে এখন অন্যান্য সবজি চাষাবাদ করিতেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য