কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক ওয়ার্ডবয় করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় ওই হাসপাতালের তিনজন ডাক্তার, দুইজন নার্স ও একজন ওয়ার্ডবয়কে হাসপাতালের কোয়ারেন্টিন সেন্টারে রাখা হয়েছে।

এছাড়াও আক্রান্ত ওয়ার্ড বয়কে বর্তমানে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শামসুন্নাহার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, শনিবার উপজেলার প্রথম করোনা রোগী তাজুল ইসলাম সুস্থ হবার পর হাসপাতাল থেকে রিলিজ দেয়ার কিছুক্ষণ পর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক ওয়ার্ডবয়ের করোনা ধরা পড়ে। তবে হাসপাতাল লকডাউন করা হয়নি।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় হাসপাতালের সব স্টাফদের নমুনা সংগ্রহ করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে। রোববার ৫ জন স্টাফের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। প্রতিদিন কমপক্ষে তিন জন স্টাফের নমুনা সংগ্রহ করে পাঠানো হবে।

এছাড়াও করোনা আক্রান্ত হওয়া ওয়ার্ডবয়ের ডায়াবেটিকসহ উচ্চ রক্তচাপ রয়েছে। তাকে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এতে অন্যদের আতঙ্কিত হওয়ার কোনও কারণ নেই। হাসপাতালের স্বাভাবিক কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।

কুড়িগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. হাবিবুর রহমান জানান, আক্রান্ত ওয়ার্ডবয়ের সঙ্গে যারা ডিউটি করেছেন সকলকে কোয়ারেন্টিনে রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য