দিনাজপুর সংবাদাতাঃ প্রানঘাতী করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমন দিনাজপুর জেলায় সিভিল সার্জন এর অফিসের তথ্য অনুসারে আরও ৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। ৩ জনের বাড়ী কাহারোল উপজেলায় ৫নং সুন্দরপুর ইউনিয়নে শাই নগর গ্রামে মন্ডল পাড়াতে অবস্থিত। তারা তিনজনই এ্কই পরিবারের সদস্য। তাদের মধ্যে পুরুষের বয়স ৩৯, মহিলার বয়স ৩২ ও শিশুর বয়স ২৩ মাস।

আর পার্বতীপুর উপজেলায় রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নে ভিত্তি পাড়ায় (সৈয়দপুর ইসলামী ব্যাংকে কর্মরত) ১ জন করোনা পজিটিভ পুরুষের বয়স ৩৮ বৎসর। এই নিয়ে দিনাজপুর জেলায় (কোভিড-১৯) পজিটিভ সংখ্যা সর্বমোট পূর্বে ১৭ + ৪ = ২১ জন এর মধ্যে ১৫ জন পুরুষ ও ৪ জন মহিলা এবং ২ জন শিশু।

আর গত ২৪ ঘন্টায় ৩০ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। গতকাল পর্যন্ত দিনাজপুর আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজের ল্যাব থেকে মোট ৪৩টি নমুনার ফলাফল পাওয়া গেছে এর মধ্যে ৪টি (কোভিড-১৯) পজিটিভ বাকীগুলি নেগেিেটভ।

অদ্যাবধি ল্যাবটেরিতে প্রেরিত নমুনার সংখ্যা ৬৬১ টি এবং অদ্যাবধি ফলাফল পাওয়া নমুনার সংখ্যা ৬২৩ টি তার মধ্যে ২১ টি পজিটিভ অর্থাৎ ২১ জন করোনা রোগী শনাক্ত। এই ২১ জন ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর মধ্যে দিনাজপুর সদর ৬ জন, কাহারোল ৪ জন, বোঁচাগঞ্জ ১ জন, ফুলবাড়ী ১ জন, পার্বতীপুর ২ জন, নবাবগঞ্জ ৩ জন ও ঘোড়াঘাট ২ জন, হাকিমপুর ২ জন সহ মোট ৮টি উপজেলায় রয়েছে।

বর্তমানে ০৩ জনসহ হোম আইসোলেশনে রয়েছে মোট ১৯ জন এবং প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে আছে ১ জন (নবাবগঞ্জ উপজেলা) শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইনে ৫০৬০ জনের মধ্যে ৩৫৫১ জন সুস্থ থাকায় অব্যাহতি পেয়েছে। বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনের সংখ্যা দাড়িছে ১৫০৯ জন।

গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে দিনাজপুর জেলায় ৮৩ জন হোম কোয়ারেন্টাইন গ্রহন করেছে। অদ্যাবধি প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে প্রেরিত হয়েছেন ১৮৪ জন এবং প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন থেকে অব্যাহতি পেয়েছে ৪৭ জন।

সিভিল সার্জন জানান, আর যারা ইতিমধ্যে নারায়নগঞ্জ, ঢাকা ও গাজীপুর থেকে এসেছে এবং ইতিপূর্বে যারা হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিল তাদের সন্দেহ হলে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হচ্ছে। নতুন আক্রান্ত রোগী নারায়নগঞ্জ থেকে এসেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য