দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরে করোনাভাইরাসা প্রতিরোধে গৃহীত কার্যক্রম ও সার্বিক ব্যবস্থাপনা বিষয়ক মতবিনিময় সভায় ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রনায়লয়ের সচিব মো. নুরুল ইসলাম বলেছেন, “সকল ভেদাভেদ ভুলে সবাইকে এই করোনা যুদ্ধে সামিল হতে হবে। আমরা জাতির এই ক্রান্তি লগ্নে সবাই একত্রিত হয়ে মিলেমিশে কাজ করব।

শনিবার (২ মে) বিকাল ৩ টায় দিনাজপুর জেলা প্রশাসকের সম্মলেন কক্ষে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম এর সভাপতিত্বে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের সচিব নুরুল ইসলাম আরও বলেন, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। অতি মানবীয়তা নিয়ে তিনি সার্বক্ষনিক পর্যবেক্ষন করছেন। আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অনুপ্রেরণায় ও তাঁর হাত ধরেই কাজ করে যাচ্ছি।

নুরুল ইসলাম আরও বলেন, “একজন ভিক্ষুক তার জমানো টাকা প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দিয়েছেন। আমাদের তার কাছেও অনেক কিছু শেখার আছে। একজন মুচিও তার জমানো কষ্টের টাকা ত্রাণ তহবিলে দিয়েছেন। এসব মানুষের কাছে আমাদের শিক্ষা নিতে হবে।

এই দুর্যোগকালীন সময়ে কাউকে নিন্দা না করে বরং সবার সহযোগিতায় একতাবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। একজন চিকিৎসক রোগী না দেখলে সবাইকে খারাপ বলা যাবে না। এই কঠিন সময়েও চিকিৎসক, প্রশাসন, পুলিশ, সাংবাদিকরা কাজ করে যাচ্ছেন। সবার একাত্বতা ছাড়া এই করোনাভাইরাস প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়।”

দিনাজপুর জেলা ত্রাণ সমন্বয়কারী হিসেবে দায়িত্ব পাওয়ার পর প্রথমবারের মত দিনাজপুরের সকল অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের সাথে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জেলায় গৃহীত কার্যক্রম ও সার্বিক ব্যবস্থাপনা বিষয়ে মতবিনিময় সভা করেন।

মতবিনিময় সভায় দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জেলায় গৃহীত বর্তমান পর্যন্ত যেসব পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন সেগুলোর বিস্তারিত তুলে ধরেন। সেই সাথে ত্রাণ কার্যক্রমের বিভিন্ন বরাদ্দ ও বিতরণের বিষয়েও বিস্তারিত আলোচনা করেন।

এ সময় মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুরের পুলিশ সুপার মো. আনোয়ার হোসেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল ইমাম চৌধুরী, সিভিল সার্জন ডা. আব্দুল কুদ্দুছ, সেনাবাহিনী, বিজিবি, আনসার বাহিনীর কর্মকর্তা ছাড়াও দিনাজপুরের কর্মরত বিভিন্ন অধিদপ্তরের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক ও সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য