বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ২ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বাংলাদেশ সময় রবিবার (২৬ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৮টা নাগাদ বিশ্বে প্রাণহানির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ২ হাজার ৮৩২ জনে।

আর মোট আক্রান্ত হয়েছে ২৮ লাখ ৯৬ হাজার ৬৩৩ জন। আর এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৮ লাখ ১৬ হাজার ৫৩৭ জন।২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে ছড়িয়ে পড়ে মরণঘাতী করোনাভাইরাস।

উৎপত্তিস্থল চীনে ৮৩ হাজারেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হলেও সেখানে ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব কমে গেছে। তবে বিশ্বের অন্যান্য দেশে এই ভাইরাসের প্রকোপ বাড়ছে। চীনের বাইরে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ১৩ গুণ বৃদ্ধি পাওয়ার প্রেক্ষাপটে গত ১১ মার্চ দুনিয়াজুড়ে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত ১৮৫টি দেশ ও অঞ্চল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৯ লাখ ৩৮ হাজার ৭২। মৃত্যু হয়েছে ৫৩ হাজার ৭৫৫ জনের। আর এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছে ১ লাখ ৩৭২ জন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে স্পেনে। সে দেশে ২ লাখ ২৩ হাজারের বেশি ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ২২ হাজার ৯০২ জনের। তবে মৃতের দিক দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পরের অবস্থানে রয়েছে ইতালি। দেশটিতে মৃতের সংখ্যা ২৬ হাজার ৩৮৪। আর আক্রান্ত হয়েছে এক লাখ ৯৫ হাজার ৩৫১ জন।

ফ্রান্সে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৬১ হাজার ৬৪৪ জন। মৃতের সংখ্যা ২২ হাজার ৬০০ ছাড়িয়েছে।

যুক্তরাজ্যেও করোনায় মৃতের সংখ্যা ২০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৪৯ হাজার ৫৬৯ জন। যুক্তরাজ্যের চেয়ে জার্মানিতে আক্রান্তের সংখ্যা বেশি হলেও তুলনামূলক মৃত্যু অনেকটাই কম সেখানে। সে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৫৬ হাজার ৫১৩। আর মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৮৭৭ জনের।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য