আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাটঃ লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী-চ্যাংড়াবান্ধা সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের ছোড়া রাবার বুলেটে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) এক সদস্যসহ তিনজন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) বিকেল সাড়ে ৫টা থেকে ৬টার মধ্যে বুড়িমারী-চ্যাংড়াবান্ধা স্থলবন্দরের জিরো পয়েন্ট সীমান্তে এ ঘটনা ঘটে। রংপুর-৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের বুড়িমারী কোম্পানি কমান্ডার ওমর ফারুক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আহতরা হলেন-বুড়িমারী ইউনিয়নের তাঁতীপাড়া এলাকার আবদুল আজিজ পেট্টু (৫০) ও আইনুল হক (৪০)। আহত বিজিবির সদস্যের নাম খোকন হোসেন।

আহতদের মধ্যে বিজিবি সদস্য খোকন ও আইনুল প্রাথমিক চিকিৎসা নিলেও আবদুল আজিজের ডান হাতে অস্ত্রপচার করে রাবার বুলেট অপসারণ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে আহত আবদুল আজিজ বলেন, “হঠাৎ বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ভারতীয় চ্যাংড়াবান্ধা বিএসএফ ক্যাম্পের সদস্যরা একজন ভারতীয় নাগরিককে পুশইন করে। এই খবর মুহুর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজন জড়ো হয়ে প্রতিবাদ জানায়। আমরাও বিজিবির সঙ্গে উপস্থিত ছিলাম। কিন্তু বিএসএফ কোনো কারণ ছাড়াই এলোপাথাড়ি রাবার বুলেট নিক্ষেপ করতে থাকে। এতে আমার ডান হাতেসহ শরীরে আঘাত লাগে।”

আহত আইনুল হক বলেন, “এখন এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোনো মুহুর্তে আরও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে।”

জানতে চাইলে বুড়িমারী স্থলবন্দর বিজিবি ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার ওমর ফারুক বলেন, “এই ঘটনায় আমরা কড়া প্রতিবাদপত্র পাঠিয়ে বিএসএফকে পতাকা বৈঠকের আহ্বান করেছি। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ঘটনাস্থলসহ বিভিন্ন পয়েন্টে বিজিবি মোতায়েন রয়েছে।”

তিনি আরও বলেন, “ভারতীয় বিএসএফ ছয় রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করেছে বলে আমরা প্রাথমিকভাবে জানতে পেড়েছি। এতে দুই নাগরিকসহ একজন বিজিবি সদস্য আহত হয়েছেন। ”

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য