প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ দিন দিন বেড়েই চলছে। তবে এই ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে নিজেদের বাঁচাতে অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে। এ ছাড়া সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, সাবান বা অ্যালকোহল বেস্ট হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার করা ইত্যাদি মেনে চলার কথাও বলা হয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে।

তবে শুধু মাস্ক পরলেই চলবে না। মাস্ক পরার সঠিক নিয়ম এবং পরবর্তী সময়ে তা পরার জন্য কীভাবে পরিষ্কার করবেন তা জানাও অত্যন্ত জরুরি। কারণ অপরিষ্কার মাস্ক থেকেও রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকতে পারে।

যদি সার্জিক্যাল মাস্ক ব্যবহার করেন তবে সে ক্ষেত্রে কোনো সমস্যা নেই। কারণ সার্জিক্যাল মাস্ক একবার ব্যবহার করার পরেই ফেলে দিতে হয়। যদি আপনি এন৯৫ মাস্ক ও ত্রিস্তরীয় যুক্ত সুতি বা টেরিলিন কাপড়ের মাস্ক ব্যবহার করেন, তাহলে আপনাকে প্রতিদিন তা পরিষ্কার করতে হবে। তবে মাস্ক ব্যবহারের পরে তা পরিষ্কারের বেশকিছু দিক নির্দেশনা দিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বোল্ডস্কাই।

মাস্ক পরার আগে : মাস্ক পরার আগে অ্যালকোহল বেসড হ্যান্ডওয়াশ ও সাবান দিয়ে ভালো করে হাত ও মুখ ধুয়ে নেবেন। এরপর অ্যালকোহল বেসড হ্যান্ড স্যানিটাইজার হাতে লাগিয়ে নিন। তারপর মাস্ক পরুন।

মাস্ক পরার পরে : মাস্ক খোলার পর সঠিক জায়গায় প্যাকিং করে রাখবেন। তারপর ভালো করে হাত ও মুখ ধোবেন। মাস্ক খুলে দেওয়ার পরে তাতে আর হাত দেবেন না। কারণ তা থেকে সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

পরিষ্কারের নিয়ম : বাড়ি ফিরে ফিতে বা রবার ব্যান্ডের অংশ ধরে পেছন থেকে মাস্ক খুলুন। সামনের দিক থেকে ধরে মাস্ক খুলবেন না। এরপর মাস্কটি সরাসরি সাবান পানিতে ভিজিয়ে দিন। কমপক্ষে ১৫ মিনিট সাবান পানিতে ভিজিয়ে রাখবেন। সাবান পানিতে না ডোবাতে চাইলে মাস্কটি সরাসরি লবণযুক্ত ফুটন্ত গরম পানিতে ফেলে দিন। কমপক্ষে ১০ মিনিট ভিজিয়ে রাখবেন। কেচে নেওয়ার পরে মাস্কের দড়ির অংশটি ক্লিপ দিয়ে আটকে কড়া রোদে শুকিয়ে নিন। রোদ থেকে তুলে নেওয়ার পর, পরার আগে ৫ মিনিট বা তার বেশি সময় ধরে ইস্ত্রি করে নিন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য