মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) সংবাদদাতা ॥ নীলফামারীর সৈয়দপুরে করোনা দূর্যোগের জন্য দেওয়া সরকারী ত্রাণের চালের স্লিপ বিক্রিকারী উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি আজম আলী সরকারের দৃষ্টান্তমুলক বিচারের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে হতদরিদ্র ও কর্মহীন হয়ে পড়া শত শত নারী-পুরুষ। ১৮ এপ্রিল শনিবার সকাল সাড়ে ১১ টায় উপজেলার খাতামধুপুর ইউনিয়নের হামুরহাট হতে তারাগঞ্জ যাওয়ার প্রধান সড়কে ৯ নং ওয়ার্ডবাসী এ কর্মসূচী পালন করে।

দীর্ঘ প্রায় ২ ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধনে উপস্থিত প্রায় ৭ শতাধিক নারী পুরুষ আবালবৃদ্ধবণিতা দ্রুত তাদের ত্রাণ প্রদানেরও দাবি জানায়। এসময় সকলে ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের খালিশায় হতদরিদ্রদের মাঝে ত্রাণের স্লিপ ১শ’ টাকা করে বিক্রির প্রতিবাদ জানায় এবং জড়িত ব্যক্তির দলীয় পদ থেকে বহিস্কার ও গরীবের সাথে এহেন দূর্যোগ মুহুর্তে তামাশা করার জন্য বিচার দাবি করে বিক্ষোভ করতে থাকে।

তারা বলেন সরকার ঘোষণা করছে সবার ঘরে ঘরে চাল পৌছে দেওয়া হবে এবং সে অনুযায়ী বরাদ্দও দেওয়া হয়েছে। কিন্তু সেই ত্রাণ পেতে গেলে কেন স্লিপ কিনে নিতে হবে। কেন কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষগুলো ত্রাণ না পেয়ে না খেয়ে দিনাতিপাত করবে। তারা এ ব্যাপারে সরকারের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষসহ প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে ত্রাণ নিয়ে অনিয়মকারীদের বিরুদ্ধে সজাগ থেকে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান।

অনেকে ত্রাণের স্লিপ বিক্রি সংক্রান্ত খবর প্রকাশ করায় সংবাদকর্মীদের সাধুবাদ জানিয়ে গরীবের পাশে সত্যের সাথে থাকার অনুরোধ জানান এবং যারা এ ঘটনাকে মিথ্যে বলে উড়িয়ে দিতে চাচ্ছেন তাদের সঠিকভাবে যাচাই করে সরকারের উদ্যোগকে ভেস্তে দেওয়ার মত এহেন ন্যাক্কারজনক কর্মকান্ডের সাথে জড়িতদের পক্ষপাতিত্ব ত্যাগ করারও আহ্বান জানান সাধারণ জনগন। এসময় তারা ‘চালের স্লিপ বিক্রিকারী আজমের বিচার চাই, দল থেকে বহিস্কার চাই’ ‘ক্ষুধার্ত মানুষ কেন খাবার পাচ্ছেনা, চেয়ারম্যান-মেম্বারদের জবাব চাই’ ‘সরকারের উদ্যোগকে প্রশ্নবিদ্ধকারী দলীয় নেতা-কর্মীদের শাস্তি চাই’ লেখা প্লাকার্ড নিয়ে অবস্থান করেন এবং শ্লোগান দিতে থাকেন।

উল্লেখ্য, খাতামধুপুর ইউনিয়নের ১ নং খালিশা গ্রামের মিলের পাড় এলাকার প্রায় ২৫ জন হতদরিদ্র নারী-পুরুষের মাঝে সরকারী ত্রাণ প্রদানের স্লিপ প্রতিটি ১শ’ টাকা করে বিক্রি করেন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি ও হাজারীহাট মোহাম্মদীয়া দাখিল মাদরাসার জীব বিজ্ঞানের শিক্ষক এবং খাতামধুপুর ইউনিয়নে সাবেক মহিলা মেম্বার হাসিনা বেগমের স্বামী আজম আলী সরকার।

গত ১৭ এপ্রিল শুক্রবার “সৈয়দপুরে ত্রাণের স্লিপ বিক্রি করলেন স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি” শীরোনামে এ সংক্রান্ত একটি সংবাদ দৈনিক নয়া দিগন্ত, দৈনিক দেশ সংবাদ, দৈনিক তিস্তা সংবাদসহ প্রায় ১০/১৫টি অনলাইন নিউজ পোর্টালে প্রকাশিত হয়। যা তাৎক্ষনিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হলে ভাইরাল হয়ে যায়। এর প্রেক্ষিতে উক্ত ইউনিয়নসহ উপজেলাব্যাপী ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য