দিনাজপুর সংবাদাতাঃ খানসামায় উপজেলার আংগারপাড়া ইউনিয়নের মাস্টার পাড়া এলাকায় জন্ম নিয়েছে দুই পা’ওয়ালা একটি গরুরু বাছুর। স্বাভাবিকভাবে গরুর ৪টি পা থাকে। কিন্তু জন্ম নেওয়া বাছুরটির সামনের দুটি পা নেই। শুধুমাত্র পেছনের দুটি পা নিয়েই জন্মগ্রহণ করেছে। বাছুরটিকে একনজর দেখার জন্য দূর-দূরান্ত থেকে ছুটে আসছে উৎসুক জনতা।

শুক্রবার (১৭ এপ্রিল) বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে আংগারপাড়া ইউনিয়ের মাস্টার পাড়া এলাকার প্রদীপ কুমারের বাড়িতে এই গরুর বাছুরটি জন্ম নেয়। জন্ম নেওয়ার পর বাছুরটি গাভীর দুধ পান করেছে বলে জানান গরুর মালিক প্রতীপ কুমার। তবে দেড় ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও এখনো হাটতে পারছে না বাছুরটি।

দুই পা’ওয়ালা বাছুর দেখতে উপজেলার খামারপাড়া থেকে ছুটে আসছেন মো. নাইম হাসান। তিনি বলেন, ‘দুই পা’ওয়ালা বাছুর আমি আগে কখনো দেখিনি। যখন শুনলাম এখানে দুই পা’ওয়ালা গরুর বাছুর হয়েছে তখন দেখার জন্য আসলাম।’

মাস্টার পাড়া এলাকার গরুর মালিক প্রতীপ কুমার বলেন, ‘এর আগেও গরুটির ৪টি বাছুর হয়েছে, সেগুলো স্বাভাবিক ছিল। তবে এবারের বাছুরটি দুই পা নিয়ে জন্মেছে। বাছুরটি দেখার জন্য অনেক দূর-দূরান্ত থেকে লোকজন দেখতে আসছে। আমি তো কাউকে আসার জন্য মানাও করতে পারছি না। তবে বাছুরটি বর্তমানে সুস্থ্য আছে। মায়ের দুধ খাচ্ছে। দেড় ঘন্টা হলেও দাড়াতে পারেনি। মনে হয় কয়েকদিন গেলে দাড়াতে পারবে।’

এ বিষয়ে খানসামা উপজেলা প্রাণী সম্পদ বিভাগের ভেটেরিনারি সার্জন বিপুল কুমার চক্রবর্তী বলেন, ‘এটাকে মেডিকেল এর ভাষায় বলা হয় (কনজেনিটাল এনোমালিস)। এটা একটা জীণগত সমস্যা। আমাদের শরীরের সকল কিছু জন্য কোন না কোন জীণ দায়ী। বাছুরটির সামনের পা বৃদ্ধির জন্য যে জীণ দায়ী, সেই জীণটির কোন সমস্যা থাকায় ভ্রুণ অবস্থায় বাছুরটির পা এর স্বাভাবিক বৃদ্ধি ঘটেনি।’

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য