এশিয়ায় ভয়াবহ অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের আভাস দিয়েছে আন্তর্জাতিক অর্থ তহবিল (আইএমএফ )। বুধবার এক ব্লগ পোস্টে এমন আভাস দিয়েছে সংস্থাটি। এতে বলা হয়, গত ৬০ বছরে এই প্রথমবারের মতো এশিয়ার অর্থনীতিতে কোনও প্রবৃদ্ধি হবে না। ২০০৮ সালের মন্দার সময়েও এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়নি।

করোনার প্রকোপে গোটা বিশ্বের অর্থনীতিই মন্দার মুখে দাঁড়িয়ে। আইএএমএফ বলছে, এ পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে এ বছর বিশ্ব অর্থনীতির তিন শতাংশ ক্ষতির মুখে পড়বে। ২০০৮ সালে অর্থনৈতিক মন্দার সময়েও এশিয়ার বাজার সম্পূর্ণ ধসে পড়েনি। আইএমএফ-এর পরিসংখ্যান বলছে, সে বছর এশিয়ার বার্ষিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হার ছিল ৪ দশমিক ৭ শতাংশ। কিন্তু করোনার প্রকোপে ২০২০ সালের অর্থনৈতিক চিত্র আরও ভয়াবহ জায়গায় পৌঁছেছে। আইএমএফ-এর আশঙ্কা এ বছর কোনও প্রবৃদ্ধিই দেখতে পাবে না এশিয়ার বাজার।

আইএমএফ-এর এশিয়া এবং প্যাসিফিকের প্রধান এই অঞ্চলের সবকটি সরকারকে বিষয়টি নিয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এর ফলে বাজার যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হবে, তেমনি ভয়াবহ সমস্যায় পড়বে গরিব মানুষ। প্রতিটি সরকারের কাছে তার অনুরোধ, গরিবের জন্য আর্থিক প্রণোদনার পরিকল্পনা এখন থেকেই শুরু করা হোক। কেননা, বিশেষ প্যাকেজ ছাড়া গরিব মানুষকে বাঁচানো কঠিন।

বাংলাদেশ সময় ১৬ এপ্রিল দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২০ লাখ ৬৪ হাজার ৬৬৮। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বাস্তবে আক্রান্তের সংখ্যা আরও অনেক বেশি। ইউরোপ কিংবা আমেরিকায় যে পরিমাণ টেস্ট হচ্ছে, এশিয়া ও আফ্রিকার দেশগুলোতে এখনও তেমন পরীক্ষা হচ্ছে না। পরীক্ষা হলে আক্রান্তের সংখ্যা আরও বাড়তো। কিন্তু ব্যাপকভিত্তিক পরীক্ষা না হওয়ায় সবাইকে শনাক্ত করা সম্ভব হচ্ছে না। সূত্র: ডিডব্লিউ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য