বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় এক চিকিৎসকসহ আরো ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়াল ৫০ জনে। এছাড়া, নতুন শনাক্ত হয়েছেন আরো ২১৯ জন। এর ফলে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২৩১ জনে।

আজ (বুধবার) দুপুরে মহাখালীর ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (এমআইএস) বিভাগের মিলনায়তনে অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে নিজ বাসা থেকে যুক্ত হয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এ তথ্য জানান। বক্তব্যের শুরুতেই স্বাস্থ্যমন্ত্রী সিলেটে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ডা. মঈনউদ্দিনের মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা জানান এবং তাঁর পরিবারের পাশে থাকার ঘোষণা দেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও তার মৃত্যুতে সমবেদনা জানিয়েছেন বলে জানান মন্ত্রী।

রাজধানীর মহাখালী থেকে অনলাইনে বুলেটিন উপস্থাপন করেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

ব্রিফিংয়ে জাহিদ মালেক জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশব্যাপী ১৭৪০ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এরমধ্যে ২১৯ জনের শরীরে করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে। এ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা মোট ১২৩১ জন। এছাড়া, নতুন ৭ জনসহ মোট ৪৯ জন করোনাভাইরাস থেকে সুস্থ হয়েছেন বলে তিনি জানান।

ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত চারজনের মধ্যে নারী একজন, তিনজন পুরুষ। ৪ জনের মধ্যে ২ জনের বয়স ৭০ এর বেশি। যে চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে তার বয়স ৫০ বছর। আরেকজনের বয়স ৩৫ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে। তিনি ক্যান্সার আক্রান্ত ছিলেন। পার্সটুডে

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য