বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে (ডব্লিউএইচও) আর্থিক সহায়তা বন্ধ করার জন্য প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। করোনা মহামারি মোকাবিলায় আমেরিকা যখন রীতিমতো হিমশিম খাচ্ছে তখন ট্রাম্প এ বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নিলেন।

ডব্লিউএইচও’র বিরুদ্ধে অব্যবস্থাপনার অভিযোগ এনে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার হোয়াইট হাউজে এক সংবাদ সম্মেলনে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, চীনে করোনাভাইরাস মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়াকে বিশ্বের কাছে সঠিক গুরুত্বের সঙ্গে তুলে ধরেনি সংস্থাটি, বরং ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাবের বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ারই চেষ্টা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

ট্রাম্প আরও বলেন, ‘করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার ক্ষেত্রে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অব্যবস্থাপনা এবং ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার ভূমিকা কতটা ছিল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যত দিন না পর্যালোচনা শেষ হচ্ছে, আমার প্রশাসনকে আর্থিক অনুদান দেওয়া বন্ধ রাখতে বলেছি।’

এদিকে, ট্রাম্পের এমন সিদ্ধান্তের পর জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আর্থিক অনুদান বন্ধ করা সঠিক সিদ্ধান্ত নয়।

ডোনাল্ড ট্রাম্প এর আগেও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছিলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সংস্থাটির ভূমিকায় তিনি মোটেও সন্তুষ্ট নন। প্রয়োজনে সংস্থাটির জন্য বরাদ্দ অনুদান বন্ধ করে দেবে আমেরিকা।

করোনাভাইরাস মহামারী নিয়ে ট্রাম্পের এমন আচরণের প্রতিক্রিয়ায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রোস আধানম বলেন, ‘সব রাজনৈতিক নেতার উচিত এখন মানুষের জীবন বাঁচানোর পদক্ষেপ নেওয়া। এই ভাইরাস নিয়ে দয়া করে রাজনীতি করবেন না।’

এদিকে, জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ে তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় আমেরিকায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে দুই হাজার ৩৭৬ জন। এ নিয়ে দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বেড়ে হয়েছে ২৬ হাজার ৫৭ জন। সেইসঙ্গে দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত বেড়ে হয়েছে ছয় লাখ সাড়ে ৯ হাজার। পার্সটুডে

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য