দিনাজপুর সংবাদাতাঃ করোনায় আক্রান্ত রোগীর প্রাণ রক্ষায় দিনাজপুরের ২টি হাসপাতালে প্রস্তুত রয়েছে ১৩টি ভেন্টিলেটর মেশিনসহ ১৭টি আই সি ইউ বেড। এছাড়াও প্রাথমিক অবস্থায় চিকিৎসার জন্য পৃথক আইসোলেশন ইউনিটে রয়েছে আরো ৯৫টি বেড। করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য প্রস্তুত রয়েছে দিনাজপুরের স্বাস্থ্য বিভাগ।

তবে এখন পর্যন্ত দিনাজপুরে কভিড ১৯ এ আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়নি। করোনা পরীক্ষায় এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজে চলছে পিসিআর মেশিন বসানোর কাজ। এক সপ্তাহের মধ্যে দিনাজপুরের রোগ নির্নয় সম্ভব হবে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

দিনাজপুরের এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ নির্মল চন্দ্র দাস জানান, হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) সচল রয়েছে ১০টি ভেন্টিলেটর মেশিনসহ ১০টি বেড। পাশাপাশি হাসপাতাল চত্তরে তৈরি করা হয়েছে ১০ শর্য্যার পৃথক একটি আইসোলেশন ইউনিট। এদিকে বেসরকারি জিয়া হার্ট ফাউন্ডেশন এবং রিসার্স সেন্টারে রয়েছে ৩টি ভেন্টিলেটর মেশিনসহ আরো ৭টি বেড। বিভিন্ন ইউনিটে দ্বায়িত্ব পালন করছেন সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকেরা।

দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ আব্দুল কুদ্দুস জানান, কাহারোল উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ২৫টিসহ জেলায় প্রস্তুত রাখা হয়েছে ৯৫ বেডের পৃথক আইসোলশন ইউনিট।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য