দিনাজপুর সংবাদাতাঃ ঢাকা নারায়নগঞ্জ থেকে বীরগঞ্জে আসা ২০জনেই সুস্থ্য সকলেই তারা হোম-কায়ারেন্টাইনে ও প্রশাসনের নজরদারিতে, ২ জনের আলমত (স্যাম্পল) সংগ্রহ করে ঢাকায় প্রেরন করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ মোঃ আনোয়ার উল্যাহ জানান, উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে ঢাকা নারায়নগঞ্জ থেকে বীরগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের বাড়ীতে ফিরে আসা ঢাকা থেকে ২০ জনের নামের তালিকা পেয়ে প্রত্যেকের বাড়ী বাড়ী গিয়ে খোজ-খবর নিয়ে জানতে পেরেছি, তারা সকলেই সুস্থ্য আছে।

ঢাকা নারায়নগঞ্জ থেকে ২০জন গ্রামের বাড়ীতে ফিরে আসা সকলেই সুস্থ্য রয়েছে তারা সেচ্ছায় হোম-কায়ারেন্টাইনে প্রশাসনের নজরদারিতে রয়েছে। সার্বক্ষনিক তাদের খোজ-খবর রাখা হচ্ছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরী বিভাগে জ্বর সর্দ্দি নিয়ে চিকিৎসা নিতে আসা ২ জন অসুস্থ্য রোগির আলমত (স্যাম্পল) সংগ্রহ করে গতকাল ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে উপজেলা প্রশাসন, রাজনৈতিক সংগঠন, জনপ্রতিনিধি, সামাজিক সংগঠন ঘরবন্দি মানুষের বাড়িবাড়ী খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিচ্ছে। সেনাবাহিনী, পুলিশ ও র‌্যাবসহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনী সার্বক্ষনিক সর্তক্য ও তৎপর রয়েছে। টহল ও জনসচেতনেতা অব্যাহত রেখেছে।

সকাল থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত কাঁচা বাজার ও খাদ্য সামগীর দোকান খোলা থাকলেও এরপর ঔষুধ ফার্মেসী ছাড়া সবকিছু বন্ধ, সরকারী সিদ্ধন্ত মোতাবেক মসজিদে মসজিদে মুসুল্লি প্রবেশ করেনি বাড়ীতেই জুম্মার নামাজের পরির্বতে যোহরের নামাজ আদায় করেছে।

এদিকে পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বনমালী রায়ের নেতৃত্বে এলাকাবাসীর উদ্যোগে বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে মোড়ে বাঁশ দিয়ে রাস্তাগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বীরগঞ্জ পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের পাড়া- মহল্লায় থেকে আসা সন্ধেহ জনক ব্যক্তি সম্প্রতি বিভিন্ন এলাকা থেকে এসেছেন। অনুপ্রবেশ ঠেকাতে স্বেচ্ছায় লকডাউন ঘোষণা করলেন ওই এলাকার সচেতন মানুষ।

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে দেশ- বিদেশ থেকে জ্বর, সর্দি এবং গলা ব্যাথা ইত্যাদি লক্ষণ আছে বলে জানতে পেয়ে এলাকাবাসীর মাঝে করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঐসব এলাকায় বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে মোড়ে বাঁশ দিয়ে রাস্তাগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এসময় আরও জনসচেতনতা মূলক সমাজের সচেতন ব্যক্তিবর্গরা কাউন্সিলর বনমালী রায়কে সঙ্গে নিয়ে এলাকার সাধারণ মানুষদের বিভিন্নভাবে সচেতন করে আসছে।

ঐসব এলাকাতে সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, এলাকার সচেতন যুবকরা তাদের নিজ উদ্বোগে রাস্তার মোড়ে মোড়ে তিন ফিট পরপর দাঁড়িয়ে মহল্লাবাসীকে ঘরের ভিতর থেকে বাহির বের না হওয়ার জন্য অনুরোধ করেছেন।

সেই সাথে বাহিরের ব্যক্তিদের এসব মহল্লার ভিতরে আসতে বাঁধা দিয়ে তারা বিভিন্নভাবে সচেতন মূলক কথা বলছেন এবং সকল ব্যক্তিদের সাবান, ডিটল, সাভলুন, জীবানুনাশক পানি দিয়ে স্প্রে করার পরে সাধারণ মানুষদের ঐসব মহল্লাতে প্রবেশ করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। এবং তাদের বলা হচ্ছে এই এলাকা লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ইয়ামিন হোসেন জানান, সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে নিজ নিজ এলাকা সুরক্ষা রাখার জন্য এই ধরণের উদ্যোগ সমাজের সকলের জন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করবেন। তিনি আরও বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে করোনা ভাইরাস এর সংক্রমণ থেকে রক্ষাপেতে বীরগঞ্জ পৌর এলাকার মানুষ তাদের নিজেদের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে এলাকার সচেতন মহলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য