করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঝুঁকি এড়াতে গাইবান্ধা অবরুদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

শুক্রবার জেলা প্রশাসক আব্দুল মতিন এ ব্যাপারে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেন।

এর আগে সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংক্রান্ত জেলা কমিটির এক সভা হয়।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্রফেরত দুইজনের করোনাভাইরাস শনাক্তের পর করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংক্রান্ত সাদুল্লাপুর উপজেলা কমিটি গত ২২ মার্চ ওই উপজেলাকে অবরুদ্ধের সিদ্ধান্ত নেয়। তবে জেলা প্রশাসকের অনুমোদন না পাওয়ায় তা কার্যকর হয়নি।

এরমধ্যে গত দুই-তিন দিন থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমিত এলাকা ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ থেকে নৌ ও সড়ক পথে গাইবান্ধায় অনেক লোকজন আসার শুরু হয়।

জেলা প্রশাসকের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জেলা সিভিল সার্জনের সুপারিশক্রমে সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে আলোচনা করে গাইবান্ধা জেলাকে অবরুদ্ধ ঘোষণা করা হলো।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এর ফলে জেলা থেকে কেউ বাইরে যেতে পারবে না। জেলার অভ্যন্তরে আন্তঃ উপজেলা যাতায়াতের ক্ষেত্রেও একই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে। সব ধরনের গণপরিবহন, জনসমাগম বন্ধ থাকবে।

তবে জরুরি পরিসেবা যেমন চিকিৎসা, খাদ্যদ্রব্য সরবরাহ ও সংগ্রহ ইত্যাদি এর আওতাবহির্ভূত থাকবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।

জনস্বার্থে জারিকৃত এ আদেশ শুক্রবার বিকাল ৫টা থেকে কার্যকর হবে এবং পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বলবৎ থাকবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

ইতিমধ্যে নারায়ণগঞ্জ, টাঙ্গাইল, নরসিংদী, জামালপুর, চাঁদপুর, কক্সবাজার জেলা অবরুদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য