দিনাজপুর সংবাদাতাঃ করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে পাবনা হাসপাতালের আইসোলেশনে থাকা পলায়ন রোগী দিনাজপুরের হাকিমপুর (হিলি) উপজেলা থেকে উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।

হাকিমপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আব্দুর রাজ্জাক আকন্দ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমি আমার উপজেলার করোনা কমিটির সাথে কথা বলেছি। তারা সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।

পুলিশ আরও জানান, আমরা খবরে পেয়ে তাৎক্ষনিক গ্রামটিতে যায়। তার বাড়ি উপজেলার মাধবপাড়া গ্রামের আনিছুর রহমানের ছেলে মোস্তাক আল মামুন (২৫)।

এ বিষয়ে হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুর রাফিউল আলম মোবাইল ফোনে জানান, পলায়ন রোগীর মধ্যে কোন প্রকার করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নেই। আমরা ইতিমধ্যে মোস্তাক আল মামুনসহ তার বাড়ির সবাইকে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দিয়েছি।

উল্লেখ্য যে, চলতি মাসের (৫ এপ্রিল) ওই রোগী জ্বর, সর্দি, কাশি, মাথা ব্যাথা নিয়ে পাবনা বেড়া উপজেলার আমিনপুর থানাধীন কাশিনাথপুর এলাকার দিঘলকান্দি গ্রামে শ্বশুর বাড়িতে আসে।

সোমবার ওই রোগী সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল। শরীরের অবস্থা দেখে করোনা ভাইরাস সন্দেহে ডাক্তারেরা তাকে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখেন। কিন্তু শুরু থেকেই সেখানে থাকার ব্যাপারে আপত্তি করে আসছিলেন ওই রোগী।

গতকাল বুধবার বিকেলের পর হাসপাতালের সেবা কর্মীরা ওই রোগীকে আর ওয়ার্ডে দেখতে পায়নি। খোঁজাখুঁজির পর তারা বুঝতে পারে রোগী পালিয়ে গেছে। পরে সন্ধ্যায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ থানায় জিডি করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য