দিনাজপুর সংবাদাতাঃ “করোনা ভাইরাস” প্রতিরোধে জনসমাবেশ ঠেকাতে প্রশাসনের ঘোষিত আইন অমান্য করে দোকান খোলা রাখায় সরকারি নির্দেশ উপেক্ষা করে দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার গ্রামীণ শহর রাণীরবন্দর বাজারে দুই দোকান নগদ ৭হাজার টাকা ও ভুষিরবন্দর বাজারে ৩ দোকানকে নগদ ৩ হাজার টাকা ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমান আদায় করা হয়।

আজ ৮ই এপ্রিল বুধবার দুপুর পৌনে ১টা থেকে ১: ৩০ মিনিট পর্যন্ত চলে। এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভুমি) মো. ইরতিজা হাসান। এ সময় উপজেলার রাণীরবন্দর বাজারের স্নেহা ট্রেডাসকে নগদ ৫ হাজার টাকা ও হাবিবুর ইলেকট্রিককে ২ হাজার টাকা ও উপজেলার ভুষিরবন্দর বাজারে ৩ দোকান দারকে ১ হাজার করে আদায় করা হয় মোট ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভুমি) মো. ইরতিজা হাসান জানান, ২৬ মার্চ থেকে চলমান নির্দেশনা অনুযায়ী ঔষুধের দোকান, কাঁচামালের দোকান দুপুর (১টা ) ব্যতীত সব ধরনের দোকান বন্ধ থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। নির্দেশ উপেক্ষা করে দোকান খোলা রাখায় ৫দোকান মালিককে নগদ ১০হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, পরবর্তী নিদের্শ না দেওয়া পর্যন্ত সকাল থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত মুদি দোকান , ঔষুধের দোকান ও কাঁচা বাচার খোলা থাকবে এবং দুপুর ১টার পর শুধু ঔষুধের দোকান খোলা থাকবে। যারা এই আইন মানছে না তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘরের বাইওে বেড় ও হবেন না, নিজে ভালো খাকুন আপনার পরিবারকে ভালো রাখুন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য