নীলফামারীর ডোমারে তিনটি বাস আগুনে পুড়ে গেছে। এর মধ্যে উৎস হাসান এন্টারপ্রাইজ নামের একটি বাস সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে। আর ডোমার ট্রাভেলস ও ডোমার শাপলা সমবায় সমিতি-১ নামের দুইটি বাসের আংশিক পুড়ে গেছে। ডোমার থানার ওসি মো: মোস্তাফিজার রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

সোমবার (৬ এপ্রিল) ভোরে ডোমার বাসস্ট্যান্ডে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটে। করোনাভাইরাসে যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞার কারণে বাসগুলো ডোমার বাসস্ট্যান্ডে গত কয়েকদিন ধরে সারিবদ্ধভাবে রাখা ছিল।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে অন্য প্রায় সবকিছুর মত গণপরিবহনও বন্ধ ঘোষণার পর থেকে বাসগুলো ওই টার্মিনালে ছিল।

ওসি মোস্তাফিজার প্রাথমিক তদন্তের তথ্য দিয়ে বলেন, রোববার রাতে বাসের ভেতরে শ্রমিকরা মশার কয়েল জ্বালিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন। ভোরের দিকে আগুন লাগলে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা গিয়ে নিভিয়ে ফেলেন।

“প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ওই কয়েল থেকেই আগুনের সূত্রপাত হয়ে ছড়িয়ে পড়ে তিনটি বাস পুড়ে গেছে। তবে কেউ হতাহত হয়নি। বিষয়টি আরও তদন্ত করা হচ্ছে।”

কেউ এখন পর্যন্ত অভিযোগ করেনি বলে তিনি জানান। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য