আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধাঃ করোনা ভাইরাসের সংক্রামণ প্রতিরোধে গাইবান্ধা জেলা শহরের রাস্তা-ঘাটগুলোতে ও বিভিন্ন মোড়ে অহেতুক ঘোরাফেরা ও আড্ডা না দিয়ে বাড়ি ফিরে যেতে গাইবান্ধা সদর থানা পুলিশের পক্ষ থেকে পথচারিদের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

রোববার সকাল ১০টা থেকে জেলা শহরের বিভিন্ন সড়কে এ তৎপরতা শুরু করেছে পুলিশ। রিক্সা, মটর সাইকেলে দু’জন এবং অটোবাইকে এক সাথে গাদাগাদি করে অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহনের ক্ষেত্রেও বাধা দিয়ে অতিরিক্ত যাত্রী নামিয়ে দিয়ে পরিবহন চালকদের বাড়ি ফিরে যেতে পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। যাতে এ জেলায় করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ করা সম্ভব হয়।

এছাড়া অহেতুক ঘোরাফেরা করা এবং মোড়ে মোড়ে আড্ডা দেয়ার ক্ষেত্রেও পুলিশ বাধা প্রদান করে সকলকে বাড়ি ফিরে যেতে বলা হচ্ছে। তদুপরি সকাল ১১টার পর থেকে শহরের বাইরে থেকে রিক্সা, মটর সাইকেল ও বাই-সাইকেল নিয়ে শহরের মধ্যে প্রবেশ করার ক্ষেত্রেও বাধা দেয়া হয়। এমনকি রিক্সাসহ যাত্রীদের নামিয়ে দিয়ে রিক্সা চালকদের ফেরত পাঠানো হচ্ছে।

এব্যাপারে গাইবান্ধা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ খান মো. শাহরিয়ার জানান, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে জনেসচেতনতা সৃষ্টি এবং শহরে অহেতুক ঘোরাফেরা না করে সরকার নির্ধারিত তারিখ পর্যন্ত ঘরে থাকতে পরামর্শ দেয়ার জন্য গাইবান্ধা সদর থানা পুলিশের পক্ষ থেকে এ তৎপরতা চালানো হচ্ছে।

তবে এব্যাপারে দরিদ্র রিক্সাচালকরা জানান, এতে তারা যাত্রী পরিবহন করতে না পেরে দুর্ভোগের কবলে পড়ছে। কেননা প্রতিদিন নির্ধারিত টাকায় ভাড়া নিয়ে তারা দিনভর রিক্সা চালিয়ে যে আয় করে তা দিয়ে রিক্সা ভাড়া পরিশোধ করা এবং তাদের পরিবার-পরিজনের জীবন জীবিকা হয়ে থাকে। এভাবে দিনের পর দিন রিক্সা চালাতে না পেরে তারা অর্থাভাবে পরিবার-পরিজন নিয়ে চরম দুর্ভোগের কবলে পড়ছে। এক্ষেত্রে তারা ত্রাণ সহায়তারও প্রত্যাশা করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য