দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের বিরামপুর শহরের দৃশ্য বদলে গেছে। করোনার কারণে বিরামপুর উপজেলার রাস্তাগুলো একেবারেই ফাঁকা অবস্থায় রয়েছে। সরকারের নিদের্শনায় বন্ধ রাখা হয়েছে দোকান। শনিবার সরকারি নিদের্শনা অমান্য করে দোকান খোলা রাখায় নাজমা সেনেটারি এন্ড হার্ডওয়্যারের দোকানে সেনাবাহিনীর উপস্থিতিতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (ইউএনও) তৌহিদুর রহমান ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তিনজনকে পাচঁ দিন করে কারাদণ্ড প্রদান করেন।

বিরামপুর থানা ওসি মনিরুজ্জামান এ তথ্য জানিয়েছেন। শহরের প্রতিটি অফিসের সামনে রাখা হয়েছে হাত ধোঁয়ার ব্যবস্থা। কোথাও ভ্রাম্যমাণ আবার কোথাও স্থায়ী ভাবে করা হয়েছে এই ব্যবস্থা। শহরের প্রতিটি মসজিদের ওজুর স্থানে দেয়া হয়েছে সাবান। করোনার কারণে বিরামপুর উপজেলায় শুধুমাত্র ঔষধ, কাঁচামাল ও মুদির দোকান ছাড়া তেমন কোন দোকানপাট খোলা নেই। শহরে একাধারে চলছে মাইকে ‘করোনা ভাইরাস’ বিরোধী প্রচারণা। বিরামপুর পৌরসভার সামনে গিয়ে দেখা যায়, পৌরসভার প্রবেশমুখে স্থায়ী ভাবে করা হয়েছে হাত ধোঁয়ার ব্যবস্থা।

এছাড়াও থানা, উপজেলা পরিষদ ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে করা হয়েছে ভ্রাম্যমাণ হাত ধোয়ার ব্যবস্থা। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রবেশ করলে শরীরে ছেটানো হচ্ছে জীবাণুনাশক স্প্রে। বিরামপুর পৌরসভার উদ্যোগে কলেজ বাজার, উপজেলা গেট, পল্লবী মোড়, অবসর মোড়, ঢাকা মোড়, রেলগেট, কলা বাগানসহ বিভিন্ন স্থানে ছেটানো হচ্ছে জীবাণুনাশক স্প্রে। প্রতিদিন পৌর শহরে প্রতিটি রাস্তায় রাস্তায় জীবাণুনাশক পানি ছিটানো হচ্ছে। এই সময়েও থেমে নেই দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের কাজ।

প্রতিদিন সকাল থেকে সেনাবাহিনী, পুলিশ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সারাক্ষণ শহর ছাড়াও উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের হাট-বাজারগুলোতে টহল জোরদার করেছে। এছাড়াও বিরামপুর শহর থেকে গ্রাম পর্যন্ত যারা বিদেশ ফেরত হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে সেনাবাহিনী সদস্য উপজেলা প্রশাসন, ইউএনও ও পুলিশ প্রশাসন, ওসি খোঁজখবর রাখছেন। বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. সোলায়মান হোসেন মেহেদী বলেন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৮ বছরের এক শিশু ও মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্টকে করোনা ভাইরাস সন্দেহে আইসোলেশনে ভর্তি করানো হয়েছে।

বর্তমানে তাদের শরীরের অবস্থা অনেকটা উন্নতি হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তৌহিদুর রহমান বলেন, করোনা ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকতে সরকারের সকল পদক্ষেপ সবাইকে মেনে চলার আহ্বান জানাই। সেই সঙ্গে ঘর থেকে বাইরে বের না হওয়ার জন্য সকলকে বিশেষ ভাবে অনুরোধ করা হলো।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য