দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর জেলায় করোনা ভাইরাস সন্দেহে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ৪৪৬ জনের মধ্যে ১৯১ জনকে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসায় তাদেরকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। নতুন ৬ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনের আওতায় রাখা হয়েছে।

দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুস রোববার দুপুর সাড়ে ১২টায় তার কার্যালয়ে এতথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আজ রোববার জেলায় ৬ জনকে করোনা ভাইরাস সন্দেহে তাদেরকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এনিয়ে মোট ৪৪৬ জনকে জেলার ১৩টি উপজেলায় হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছিল। তাদের মধ্যে এ পর্যন্ত ১৯১ জনকে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসায় এবং সুস্থ্য থাকায় অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

তিনি জানান, এদের মধ্যে ২জনকে প্রাতিষ্ঠানিক ভাবে জেলার বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আইসোলিশনে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এদের মধ্যে ১ জন শিশু এবং ১ জন স্বাস্থ্য বিভাগের মেডিকেল এ্যাসিষ্টেন্ট।

তিনি বলেন, সব মিলিয়ে জেলায় বিদেশ ফেরত ৩ হাজার ২২ জনকে সনাক্ত করতে জেলা পুলিশ কাজ করছেন। তাদের অনেকেই জেলার বাইরে অন্য জেলায় অবস্থান করায় পুলিশ তাদের সনাক্ত করতে পারছেন না।

দিনাজপুরে পুলিশ সুপার মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান, সরকারী তথ্য অনুযায়ী বিদেশ থেকে ৩ হাজার ২২ জন নাগরিক দিনাজপুর জেলায় ফিরেছে। ওই তালিকা অনুযায়ী প্রত্যেকের বাড়ীতে গিয়ে পুলিশ তাদের খোজ খবর নিচ্ছে। কিন্তু সরকারী তথ্য অনুযায়ী এই জেলায় উল্লেখিত সংখ্যাক নাগরিক বিদেশ থেকে ফেরার কথা বলা হলেও তাদের নিজ বাড়ীতে গিয়ে পাওয়া যাচ্ছে না।

তারা অন্যত্র নিজেদের হেফাজতে রয়েছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। তারপরও পুলিশের নজরদারী চলমান রয়েছে। বিদেশ ফেরত নাগরিকদের বাড়ীতে হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখে জন সচেতনার জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে লাল পতাকা টাঙ্গিয়ে সতর্কতা অবলম্বর করা হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য