গাইবান্ধায় করোনা সংক্রমিত দুই আমেরিকা প্রবাসীর সংস্পর্শে আসা দুইজন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে। তাদের গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে রাখা হয়েছে।

নতুন করে আক্রান্ত এই দুই ব্যক্তি আমেরিকা প্রবাসী ওই মহিলার ভাগ্নি (বোনের মেয়ে) ও জা (দেবরের স্ত্রী)। গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে এক বিয়ে বাড়ীতে ও গাইবান্ধা শহরের নিজ বাড়ীতে ওই ২ আমেরিকা প্রবাসীর সংস্পর্শে এসে তারা এই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন।

গাইবান্ধা সিভিল সার্জন ডাঃ এবিএম আবু হানিফ জানান, ঢাকার রোগতত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) একটি প্রতিনিধি দল গত সোমবার গাইবান্ধায় এসে দুই আমেরিকা প্রবাসীর সংস্পর্শে আসা বেশ কিছু ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে গত বুধবার রাতে ঢাকা উদ্যেশে গাইবান্ধা ত্যাগ করেন। পরে পরীক্ষা শেষে আজ শনিবার (২৮ মার্চ) তারা (আইইডিসিআর) জানান, তাদের মধ্যে মাত্র এই দুইজনের করোনাভাইরাস ‘পজিটিভ’ এসেছে।

তিনি আরও জানান, ঢাকার রোগতত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) প্রতিনিধি দল প্রথমে আমেরিকা প্রবাসীর সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের মধ্যে ২০০ জনকে শনাক্ত করেন। পরে উপসর্গ পর্যবেক্ষণ করে তাদের মধ্যে ১০০ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। এছাড়া এই ১০০ জনের মধ্যে গুরুতর অসুস্থ বেশ কিছু ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআর টিম বুধবার রাতে ঢাকা উদ্যেশে গাইবান্ধা ত্যাগ করেন।

গাইবান্ধার সিভিল সার্জন কার্যালয়ের করোনা বিষয়ক কন্ট্রোল রুম সূত্রে জানা যায়, গাইবান্ধায় শনিবার পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা ব্যক্তির সংখ্যা ৩১১ জন। এরমধ্যে প্রবাসী বাংলাদেশী ১৮৩ জন এবং বিদেশী ৯ জন। এ পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইন শেষ হয়েছে ৮৫ জনের। আর আইসোলেশনে রাকা হয়েছে ৪ জন।

প্রসঙ্গত. সাদুল্লাপুর উপজেলার হবিুল্লাপুর গ্রামে গত ১১ মার্চ এক বিবাহোত্তর অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ওই অনুষ্ঠানে ৫ শতাধিক আত্মীয়স্বজন ও প্রতিবেশি অংশ নেন। এই অনুষ্ঠানের নিমন্ত্রণে আমেরিকা থেকে আসা দুইজন আত্মীয় আসেন। তারা ওই বাড়িতে গত ১১, ১২ ও ১৩ মার্চ অর্ধশতাধিক লোকজনের সাথে অবস্থান করেন।

গত ১৪ মার্চ বিবাহোত্তর অনুষ্ঠানের নিমন্ত্রণ খেয়ে গাইবান্ধা শহরে নিজ বাড়ি চলে যান। এরপর ওই বিবাহোত্তর অনুষ্ঠানে অংশ নেয়া অনেকে গত ২১ মার্চ গাইবান্ধা-৩ (সাদুল্লাপুর-পলাশবাড়ী) আসনের উপ-নির্বাচনে ভোট দেন। এছাড়া তারা বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে যোগদান ও প্রত্যাহিক কাজকর্মে বিভিন্ন জায়গায় যাচ্ছেন। এরমধ্যেই গত ২২ মার্চ আমেরিকা প্রবাসি ওই দুইজনের করোনা ‘পজেটিভ’ ধরা পড়ে। এই ঘটনার পর থেকে জেলা জুড়ে করোনা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য