করোনার বিস্তার ঠেকাতে দুই দিনের মধ্যে লকডাউন হচ্ছে নিউ জিল্যান্ড। দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আর্ডার্ন বলেছেন, খুব শিগগির নিউ জিল্যান্ডে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি, অত্যাবশ্যক নয় এমন সব সেবা, স্কুল ও সরকারি-বেসরকারি অফিস বন্ধ করা হবে।

আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ড ওমিটারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, নিউ জিল্যান্ডে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১০২ জন; এদের সবাই চিকিৎসাধীন। এখন পর্যন্ত কারও প্রাণহানি ঘটেনি।

করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সরকারের নেওয়া বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা জানাতে সোমবার সংবাদ সম্মেলনে হাজির হন আর্ডার্ন। তিনি বলেন, নিউজিল্যান্ড এখন স্বেচ্ছা-বিচ্ছিন্ন (সেল্ফ-আইসোলেশন) হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

গত সপ্তাহেই পূর্ব-সতর্কতা হিসেবে বিদেশিদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল নিউ জিল্যান্ড। আর্ডার্ন জানান, সব বার, রেস্তোরাঁ, জিমনেশিয়াম, সিনেমা, সুইমিং পুল, জাদুঘর, খেলার মাঠ ও যেখানে মানুষের মুখোমুখি দেখা হয় এমন সব স্থান ৪৮ ঘণ্টার জন্য বন্ধ থাকবে। তবে সুপারমার্কেট, ফার্মেসি, হাসপাতাল, জরুরি সেবা ও প্রয়োজনীয় ব্যাংকিং সেবা চালু থাকবে।

কিউই প্রধানমন্ত্রী বলেন, মঙ্গলবার থেকে দেশের সব স্কুল বন্ধ থাকবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য