দিনাজপডুর সংবাদাতাঃ গত ১৯ মার্চ দিনাজপুরের গোয়েন্দা অফিস কার্যালয়ে দুপুর ২টায় গত দুই বছর পূর্বে বিরল উপজেলা থেকে চুরি হয়ে যাওয়া ১০০ সিসির ডিসকোভার মটরসাইকেলটি গত ১৭ মার্চ বিরামপুরের কাটলাবাজার থেকে উদ্ধার করে গাড়ীর প্রকৃত মালিককে হস্তান্তর করেন দিনাজপুর গোয়েন্দা শাখার এস.আই মোঃ মোকাররম হোসেন সহ তার সঙ্গীয় ফোর্স।

ঘটনার দৃষ্টে অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত দুই বছর আগে অর্থ্যাৎ ৫ই নভেম্বর/২০১৮ সালে বিরল আদর্শ স্কুল মাঠ প্রাঙ্গনে জনসভা চলাকালীন সময় পাকুড়া গ্রামের মোঃ মোকসেদ আলীর পুত্র মোঃ নওশাদ হোসন সাজুর ১০০ সিসির একটি ডিসকোভার মটর সাইকেল চুরি হয়ে যায়। চুরি যাওয়ার পর মোটরসাইকেলের প্রকৃত মালিক মোঃ নওশাদ হোসেন সাজু বিরল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী দায়ের করেন। কিন্তু দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও বিরল থানা মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করতে ব্যর্থ হয়।

এরই সূত্র ধরে দিনাজপুর পুলিশ সুপার মোঃ আনোয়ার হোসেন (বিপিএম, পিপিএম বার) এর নির্দেশে দিনাজপুর গোয়েন্দা সংস্থার অফিসার ইনচার্জ এটিএম গোলাম রসুল (আইজিপি পদকপ্রাপ্ত) এর সঠিক দিক নির্দেশনায় গোয়েন্দা সংস্থার এস.আই মোঃ মোকাররম হোসেন, এস.আই আবু বক্কর সিদ্দিক এর নেতৃত্বে গোয়েন্দা সংস্থার সঙ্গীয় ফোর্স এ.এস.আই আলমগীর, এ.এস.আই নাহিদ সরকারকে সঙ্গে নিয়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে বিরামপুর উপজেলার কাটলা বাজার সংলগ্ন একটি দোকানের সামনে থেকে চুরি হয়ে যাওয়া ডিসকোভার ১০০ সিসি মটরসাইকেলটি গত ১৭ই মার্চ/২০২০ তারিখে উদ্ধার করে দিনাজপুর পুলিশ সুপার এর কার্যালয়ে নিয়ে আসে এবং ১৯ মার্চ বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় চুরি যাওয়া ১০০ সিসির ডিসকোভার মোটরসাইকেলটি গাড়ীর প্রকৃত মালিককে বুঝিয়ে দেন।

ইতিপূর্বেও দিনাজপুর পুলিশ সুপারের বলিষ্ঠ নেতৃত্ব ও দিক নির্দেশনা এবং অফিসার ইনচার্জ এটিএম গোলাম রসুলের বলিষ্ঠ ভূমিকায় গোয়েন্দা শাখার সদস্যদের নিয়ে আরও বেশ কয়েকটি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য