মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) সংবাদদাতা ॥ নীলফামারীর সৈয়দপুরে মোটর সাইকের চুরি করে পালানোর সময় জনতার হাতে আটক হয়ে গণধোলাইয়ের শিকার হয়েছে ২ যুবক। তারা হলো হিরো দাস ও রমজান আলী। বর্তমানে গুরুত্বর আহতাবস্থায় সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ১৮ মার্চ বুধবার দুপুর ২টায় উপজেলার বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের চৌমহনী বাজারে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জোহরের নামাজের পর বাজারের মসজিদের সামনে থেকে ২ যুবক মুসল্লীদের একটি মোটর সাইকেল নিয়ে যাওয়ার সময় ওই মুসল্লী বিষয়টি টের পায়। এসময় তিনি চিৎকার করলে অন্যান্য মুসল্লী ও পথচারীরা দ্রুত ধাওয়া করে যুবকদের আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদের তারা চুরির বিষয়টি স্বীকার করলে উপস্থিত জনতা তাদের বেধড়ক মারপিট করে। এতে তারা গুরুত্বরভাবে আহত হয়। পরে খবর পেয়ে সৈয়দপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিথ হয়ে আহত যুবকদ্বয়কে উদ্ধার করে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করে।

আটক যুবক হিরো দাস (২৮) এর পিতা গহর দাস। সে দিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলার বাসিন্দা। অপর যুবক রমজান আলী (২৫), পিতা মৃত নওয়াব আলী। বাড়ি সৈয়দপুর শহরের নিচু কলোনী বিমানবন্দর এলাকায়।

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবুল হাসনাত খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আটক দুই যুবকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য