করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে ফ্র্রান্স, সুইজারল্যান্ড এবং অস্ট্রিয়ার সঙ্গে সীমান্ত অনেকাংশেই বন্ধ করে দিচ্ছে জার্মানি। সরকারি কর্মকর্তারা একথা জানিয়েছেন।

জার্মানির গণমাধ্যম জানিয়েছে, সীমান্তগুলো সেমবার সকাল থেকেই বন্ধ করা হবে। তবে দেশগুলোর মধ্যে পণ্য পরিবহণ এবং নিত্যযাত্রী চলাচল অব্যাহত থাকবে।

জার্মানিতে ৪ হাজার ৫৮৫ জন করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়েছে এবং ৯ জন মারা গেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি। ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ)

দেশগুলো করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে সীমান্ত বন্ধ করাসহ নানা পদক্ষেপ নিচ্ছে। অস্ট্রিয়া সোমবার থেকে ৫ জনের বেশি মানুষের জমায়েত নিষিদ্ধ করছে।

রোমানিয়া জরুরি অবস্থা জারি করেছে। চেক রিপাবলিক এরই মধ্যে সীমান্ত বন্ধ করেছে। দেশজুড়ে তারা কোয়ারেন্টিন শুরু করার পদক্ষেপ নেওয়ার কথাও ভাবছে। ফ্রান্স এবং স্পেনও শনিবার ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে।

স্পেনে ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে ৯৭ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং ২ হাজার জন আক্রান্ত হয়েছে। এতে করে দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা ২৮৮ এবং মোট আক্রান্তর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ হাজার ৭৫৩ জনে।

ওদিকে, ফ্রান্সে করোনাভাইরাসে মারা গেছে ৯১ জন এবং আক্রান্ত হয়েছে ৪ হাজার ৪৯৬ জন। ইতালিতে করোনাভাইরাসে মারা গেছে ১ হাজার ৪৪১ জন এবং আক্রান্ত হয়েছে ২১ হাজার ১৫৭ জন।

চেক রিপাবলিক এবং স্লোভাকিয়া সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে এরই মধ্যে তাদের সীমান্ত বন্ধ করেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) শুক্রবার ইউরোপকে মহামারীর ‘উৎসস্থল’ আখ্যা দিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য