করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধে রংপুর চেম্বার পরিচালনা পর্ষদের সাথে রংপুরের সর্বস্তরের ঔষধ ব্যবসায়ীগণের এক মত বিনিময় সভা রংপুর চেম্বারের সভাপতি মোস্তফা সোহরাব চৌধুরী টিটুর সভাপতিত্বে চেম্বার বোর্ড রুমে অনুষ্ঠিত হয়।

স্বাগত বক্তব্যে রংপুর চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোজতোবা হোসেন রিপন বলেন, মত বিনিময় সভার মূল উদ্দেশ্যই হচ্ছে করোনা ভাইরাস। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে আতংকিত হওয়ার কোন কারণ নেই। তাই তিনি ভয়-ভীতি পরিহার করে সবাইকে জনসচেতনতামূলক কর্মকান্ড পরিচালনা করার আহ্বান জানান।

বক্তারা অভিযোগ করেন, করোনা ভাইরাসে আতঙ্কিত হওয়ায় মানুষজন ফেস মাস্ক, হ্যান্ড গ্লোবভস এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার, হ্যান্ডওয়াশ প্রয়োজনের অতিরিক্ত ক্রয় করার ফলে বাজারে কৃত্রিম সংকট তৈরি হয়েছে। এছাড়া পুলিশী ভীতি ও ভ্রাম্যমান আদালতের ভয়ের কারণে সরবরাহ কমে যাওয়ায় রংপুরে ফেস মাস্ক সংকট সৃষ্টি হয়েছে।

এর ফলে মানুষজন আতংকিত হচ্ছে। তাই অহেতুক হয়রানি বন্ধ ও সরবরাহ পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে রংপুরে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধক ঔষধের মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ার কোন সম্ভাবনা নেই। তাই ব্যবসায়ীরা মান সম্মত মাস্ক কোথায় পাবে ও কি মূল্যে বিক্রি করবে সে ব্যাপারে দিক নির্দেশনা দেয়ার জন্য প্রশাসনের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন। এছাড়া বক্তারা কোন দিক-নির্দেশনা না দিয়ে প্রশাসনের কর্তা ব্যক্তি কর্তৃক ঔষধ ব্যবসায়ীদের ওপর অহেতুক হয়রানি বন্ধের আহ্বান জানান। পরিশেষে বক্তারা রংপুরে করোনা প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ঔষধের সংকট নেই বলে মতামত ব্যক্ত করেন।

বাংলাদেশ কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতির সভাপতি আব্দুল কাদের ব্যবসায়ীদেরকে অহেতুক হয়রানি না করে প্রশাসনিকভাবে সহযোগিতা করার পাশাপাশি সরবরাহ পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে প্রয়োজনীয় কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের অনুরোধ জানান। এছাড়া করোনা ভাইরাস সনাক্তকরনে বিভাগীয় শহর রংপুরে টেস্টিং ল্যাব স্থাপনের পাশাপাশি সরকারিভাবে গুণগত মান পরীক্ষা করে ফেস মাস্ক এর মূল্য নির্ধারণের আহ্বান জানান।

রংপুর চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র সভাপতি মোস্তফা সোহরাব চৌধুরী টিটু আতঙ্ক ছড়ানো নয়, সবাইকে সতর্ক থাকার অনুরোধ জানান। তিনি বলেন, কেউ আতঙ্কগ্রস্ত হবেন না, স্বাস্থ্যবিধি মেনে সাহস ও আত্মবিশ্বাসসহ পরিস্থিতি মোকাবিলা করুন।

এছাড়া তিনি ঔষধ ব্যবসায়ীদেরকে মানব সেবার ব্রত নিয়ে দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে ফেস মাস্ক, হ্যান্ড গ্লোবভস এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার, হ্যান্ডওয়াশসহ অন্যান্য ঔষধ সহনীয় ও সুলভ মূল্যে বিক্রয় করার অনুরোধ জানান। পাশাপাশি তিনি বলেন, কোন অসাধু ব্যবসায়ী যাতে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধক ঔষধ অধিক মূল্যে বিক্রি করতে না পারে সেদিকে সবাইকে তীক্ষè নজর দেয়ার আহ্বান জানান।

মত বিনিময় সভায় রংপুর চেম্বারের পরিচালকবৃন্দসহ শতাধিক ঔষধ ব্যবসায়ী উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য