উদ্বোধনের অপেক্ষায় থাকা রংপুর শিশু হাসপাতালকে করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সন্দেহজনক ব্যক্তিদের জন্য কোয়ারেন্টাইন স্থান হিসেবে ঘোষণা করেছে রংপুর মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ১২ সদস্যের মেডিকেল টিমকে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় রাখা হয়েছে।

রংপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে করোনা ভাইরাস নিয়ে জেলা সমন্বয় কমিটির সভায় একথা জানানো হয়।

ডিসি আসিফ আহসানের সভাপতিত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. ফরিদুল ইসলাম, সিভিল সার্জন হিরম্ব কুমার রায়, পুলিশ প্রশাসনসহ স্বাস্থ্য বিভাগের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তারা।

বৈঠক শেষে জানানো হয় মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইসোলেশন বিভাগে যে পাঁচটি বেড আছে তাতে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হবে। অপরদিকে যারা সন্দেহজনকভাবে ভর্তি হবেন তাদের রাখা হবে উদ্বোধনের অপেক্ষায় থাকা রংপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে। এজন্য শিশু হাসপাতাল পরিষ্কার এবং সেখানে সাইনবোর্ড এবং প্রয়োজনীয় নির্দেশনা টাঙানো হয়েছে।

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডাক্তার ফরিদুল ইসলাম জানান, করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। তবে সবাই সচেতন থাকলে এই ভাইরাস সহজেই মোকাবেলা করা সম্ভব।

পরে রংপুর সিভিল সার্জন তার কার্যালয়ের অডিটোরিয়ামে প্রেস ব্রিফিং করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য