দোকানে দোকানে মানুষ হন্যে হয়ে ঘুরছে হ্যান্ড স্যানিটাইজের জন্যে। কোথাও নেই। কোভিড- ১৯ এর তিনটি কেইস শনাক্ত হওয়ার খবর বেরোনোর সাথে সাথে একেকজন মানুষ ১৫-২০ টা হ্যান্ড স্যানিটাইজার কিনে এর ঘাটতি তৈরী করেছে। আর ২০ টাকার মাস্ক বিক্রি হচ্ছে ১২০-১৩০ টাকায়।

আচ্ছা সাবান ও পর্যাপ্ত পানি থাকতে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের পিছে ঘুরছি কেন? এটা কি SARS CoV 2 ভাইরাসটিকে ধ্বংস করতে পারে? উত্তর হচ্ছে ভাইরাসকে ধ্বংস করার জন্যে অবশ্যই স্যানিটাইজারটি এলকোহল বেইজড হতে হবে, যাতে এলকোহলের মাত্রা থাকতে হবে ৬০ শতাংশের বেশী। এর চেয়ে কম এলকোহল থাকলে ভাইরাসের কিছুই করতে পারবেনা। তাহলে সাবান পানি কি ধ্বংস করতে পারবে ভাইরাসটিকে? হ্যাঁ ১০০%। কিভাবে? ভাইরাসটির একেবারে বাইরের আবরনটি চর্বি দিয়ে তৈরী এবং এর সব জারীজুরি এই চর্বিস্তরেই। সাবান দিয়ে ভালো করে ফেনা তুলে হাত ধুলে এই চর্বিস্তরটি নষ্ট হওয়ার সাথে সাথে ভাইরাসটি ধ্বংস হয়। তবে হাত ধুতে হবে ২০-৩০ সেকেন্ড ধরে। তাই স্যানিটাইজার নামক হীরার হরিণের পিছে না ঘুরে প্রয়োজন অনুযায়ী সাবান দিয়ে হাত ধোন।

আর মাস্ক তো সবাই ব্যবহার করবেনা। মনে রাখবেন ভাইরাসটি বাতাসে ভেসে বেড়ায়না। কাশি বা হাঁচি দিলে ভাইরাসটি একটি Respiratory droplet এর মাঝে থাকে যার সাইজ ৫ মাইক্রোমিটারের বেশী। ফলে এটি বাতাসে ভেসে থাকতে পারেনা এবং ৩ ফুটের বেশী দূরত্ব অতিক্রম করতে পারেনা। তাই শুধুমাত্র যাদের হাঁচি কাশি আছে তারাই ভাইরাসের বিস্তৃতি প্রতিরোধের জন্যে মাস্ক ব্যবহার করবেন। প্রয়োজনে রুমাল বা গামছা ব্যবহার করতে পারেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য