তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান জানিয়েছেন, রাশিয়া থেকে পাওয়া এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা চালু না করলে আমেরিকা আঙ্কারাকে প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা দেয়ার প্রস্তাব দিয়েছে। এরদোগান বলেন, “এস-৪০০ ইস্যুতে আমেরিকার অবস্থান উল্লেখযোগ্যভাবে নমনীয় হয়েছে। তারা এখন চাইছে- আমরা যেন এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা চালু না করি।”

বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে অনুষ্ঠিত একটি বৈঠক থেকে ফিরে এরদোগান এসব কথা বলেন। এরদোগানের মন্তব্য থেকে মনে হচ্ছে আমেরিকা তার অবস্থান থেকে অনেকটা পিছু হটেছে।

২০১৭ সালের শেষদিকে রাশিয়া এবং তুরস্ক এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার বিষয়ে চুক্তি চূড়ান্ত করে। এরপর থেকে এ পর্যন্ত তুরস্ক এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার বেশ কয়েকটি ব্যাটারি পেয়েছে এবং আগামী এপ্রিল মাসে এস-৪০০ চালু করার কথা রয়েছে।

রাশিয়া থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার ইস্যুতে আমেরিকার সঙ্গে তুরস্কের সম্পর্কে টানাপড়েন দেখা দেয়। আমেরিকা বলছে, ন্যাটোর সদস্য দেশ হিসেবে তুরস্ক এ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ব্যবহার করতে পারে না এবং রাশিয়ার এই ব্যবস্থা ন্যাটো সদস্য দেশগুলোর সঙ্গে লাগসই নয়।

এস-৪০০ ইস্যুতে আমেরিকা তুরস্ককে এফ-৩৫ জঙ্গিবিমান এবং প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সরবরাহ করতে অস্বীকার করে। মার্কিন প্রশাসন সেসময় বলেছিল, এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ফেরত না দেয়া পর্যন্ত তুরস্ককে প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা সরবরাহ করা হবে না।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য