মিয়ানমারের সেনাবাহিনী রয়টার্স বার্তা সংস্থা এবং স্থানীয় এক আইনপ্রণেতার বিরুদ্ধে অপরাধমূলক মানহানির মামলা করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

রাখাইন রাজ্যে দুই রোহিঙ্গা মুসলিম নারী নিহত হওয়ার একটি খবর প্রকাশিত হওয়া নিয়ে সেনাবাহিনী আপত্তি করার কয়েক সপ্তাহ পর এ মামলা হল।

ওই খবর প্রকাশের পর সেনাবাহিনী বলেছে, তাদের গোলায় ওই দুই নারী নিহত হয়নি কিংবা অন্যান্য মানুষ আহত হয়নি। তারা বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মিকে (এএ) দোষারোপ করেছে। তবে আরাকান আর্মি ঘটনার দায় অস্বীকার করেছে এবং সেনাবাহিনীকেই পাল্টা দোষারোপ করেছে। এ গোষ্ঠীটি রাখাইনে বৃহত্তর স্বায়ত্ত্বশাসনের জন্য লড়ছে। ঘটনাটি যেখানে ঘটেছে সেখান থেকে সাংবাদিকদের নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

পুলিশ লেফটেন্যান্ট কিয়াও থু বলেছেন, রাখাইনে বুথিডাং শহরের স্টেশন হেড রয়টার্সকে বলেছেন, বার্তা সংস্থাটিসহ আইনপ্রণেতার বিরুদ্ধে টেলিকমিউনিকেশন অ্যক্ট ৬৬ডি ধারায় মামলা করা হচ্ছে।

মিয়ানমারে সরকারের সমালোচকদের জেল দেওয়া হয়ে আসছে আইনটির এই ধারায় এবং অনলাইনে মানহানিও এর আওতায় বেআইনি। মানহানির সর্বোচ্চ সাজা ২ বছরের জেল।

পুলিশ লেফট্যানেন্ট কিয়াও থু বলেছেন, মামলাটির ব্যাপারে পুলিশ এখনো রয়টার্সের সঙ্গে যোগাযোগ করেনি। তবে তারা তা করবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য